বাংলাদেশ-ভারত যৌথ বাঘ গণনা জুলাইয়ে

সুন্দরবনের ১০ হাজার ২০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় বাংলাদেশ ও ভারত যৌথভাবে বাঘ গণনার কার্যক্রম আগামী জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত হবে।  সুন্দরবনের বাঘ সুরক্ষায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে গত সেপ্টেম্বরে সই হওয়া প্রটোকলের আওতায় এ বাঘ গণনার কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে।
পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা সোমবার বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান।
ইউনেস্কো ঘোষিত ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সুন্দরবনের বাঘ নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের তথ্যের ভিন্নতা রয়েছে। বাঘের সঠিক সংখ্যা নিরূপণ করে একে বাঁচাতেই এই কার্যক্রমের আয়োজন বলে জানা গেছে।
পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০০৪ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩ মার্চ পর্যন্ত জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) অর্থায়নে ‘পায়ের ছাপ’ গণনা পদ্ধতিতে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত বাঘশুমারি অনুযায়ী বাংলাদেশের সুন্দরবন অংশ ৪১৯টি পূর্ণবয়স্ক বাঘ ছিল। যার মধ্যে পুরুষ ১২১টি, স্ত্রী ২৯৮টি ও বাচ্চা বাঘের সংখ্যা ছিল ২১টি।
অপরদিকে ওই জরিপে ভারতের সুন্দরবন অংশে পূর্ণবয়স্ক বাঘ ছিল ২৭৪টি। তার মধ্যে পুরুষ ২৪৯টি ও স্ত্রী বাঘের সংখ্যা ছিল ২৫টি।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s