এসএমএসে সুন্দরবনের পক্ষে ভোট নেওয়া শুরু

প্রাকৃতিক সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে বৃহস্পতিবার থেকে মোবাইলের এসএমএসের মাধ্যমে সুন্দরবনের পক্ষে ভোট নেওয়া শুরু হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে টেলিটক, গ্রামীণফোন ও রবি’র সিম ব্যবহারকারীরা ভোট দিতে পারবেন। এ জন্য মোবাইলের এসএমএস অপশনে গিয়ে ‘এসবি (SB)’ লিখে ‘১৬৩৩৩’ নম্বরে পাঠাতে হবে। বাংলালিংক, এয়ারটেল ও সিটিসেলেও দু’একদিনের মধ্যে ভোট দেওয়া যাবে। প্রতিটি এসএমএসে ভ্যাটসহ খরচ পড়বে দুই টাকা ৩০ পয়সা। বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে পরিবেশ ও বন প্রতিমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এসব তথ্য জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, এসএমএস ভোটি শুরুর আগেই বাংলাদেশ সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে প্রথম স্থানে চলে এসেছে। এ প্রক্রিয়ায় ভোট দেওয়ার প্রক্রিয়া জোরদার হলে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে যাবে। কেবল সুন্দরবন নয় চূড়ান্ত তালিকায় থাকা ২৮টি স্পটের অন্যগুলোকেও ভোট দেওয়া যাবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, স্পটগুলোর কোড টেলিটকের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

বিঃ দ্রঃ একটি সিম থেকে যতখুশি ততো এসএমএস করে ভোট দেওয়া যাবে। প্রতিটি এসএমএসে ভ্যাটসহ খরচ পড়বে দুই টাকা ৩০ পয়সা।

কাল থেকে সুন্দরবনের জন্য এসএমএস ভোটিং শুরু

এবার মোবাইল এসএমএস-এর মাধ্যমে নতুন সপ্তাশ্চর্য হিসেবে সুন্দরবনকে ভোট দেয়া যাবে। বৃহস্পতিবার থেকে এ কার্যক্রম আনুষ্ঠিকভাবে শুরু হচ্ছে। ভোটদানে জনগণকে উদ্বুদ্ধকরণ প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক মোস্তফা কামাল পাশা একথা জানিয়েছেন।  তিনি জানান, যে কোনো অপারেটরের মোবাইল ফোন থেকে এসএমএস পাঠিয়ে ভোট দেয়া যবে। সকল অপারেটরের ভোট গ্রহণ করে টেলিটকের সার্ভার থেকে তা মূল কেন্দ্রে পাঠানো হবে। সুন্দরবনকে ভোট দিতে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের ফোনের এসএমএস অপশনে গিয়ে এসবি (ঝই) লিখে ১৬৩৩৩ নম্বরে পাঠাতে হবে। গত ২০ জুন থেকে এ এসএমএস ভোটিং শুরু হওয়ার কথা থাকলেও প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি শেষ করতে বেশি সময় লেগে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে এটি শুরু হচ্ছে।

প্রাকৃতিক সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে সুন্দরবন শীর্ষে

বিশ্বের প্রাকৃতিক সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে শীর্ষ অবস্থানে উঠে এসেছে সুন্দরবন। এ নির্বাচনে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভিয়েতনামের হেলং বে। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার জে জু আইল্যান্ড। চুতর্থ অবস্থানে রয়েছে পিলিপাইনের পিপি আন্ডারগ্রাউন্ড রিভার। তবে জার্মানির ব্ল্যাক ফরেস্ট তার অবস্থান থেকে অনেকটাই নিচে নেমে এসেছে।

সুন্দরবনকে এসএমএসে ভোট শুরু সোমবার

পৃথিবীর নতুন প্রাকৃতিক সপ্তাশ্চর্যের একটি হিসেবে সুন্দরবনকে নির্বাচনে আগামী ২০ জুন থেকে এসএমএসের মাধ্যমে ভোট দেওয়া যাবে। সুন্দরবনকে ভোট দিতে দেশের যে কোনো মোবাইল অপারেটরের গ্রাহক তার ফোনের এসএমএস অপশনে গিয়ে ‘এসবি’ লিখে ‘১৬৩৩৩’ নম্বরে পাঠাবেন। এসএমএসটি পাঠানো হলে ফিরতি আরেকটি এসএমএসে ভোট দেওয়া গ্রাহককে ধন্যবাদ জানিয়ে মেসেজ দিবে নিউ সেভেন ওয়ান্ডার্স ফাউন্ডেশন। একটি মোবাইল নম্বর থেকে যতবার ইচ্ছা ততবার ভোট দেওয়া যাবে। ভোট দেওয়ার শেষ তারিখ ১১ নভেম্বর। চূড়ান্ত তালিকার ২৮টি প্রাকৃতিক আশ্চর্যের মধ্যে সুন্দরবনের বর্তমান অবস্থান ২৪। মঙ্গলবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কার্যালয়ে নিউ সেভেন ওয়ান্ডার্স ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান টেলিটকের সঙ্গে এ বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে।
টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মজিবুর রহমান এবং নিউ সেভেন ওয়ান্ডার্স ফাউন্ডেশনের (এনসেভেনডব্লিউএফ) পরিচালক জ্যঁ পল দ্য লা ফঁতে এ চুক্তিতে সই করেন। চূড়ান্ত তালিকায় থাকা ২৮টি স্পটের অন্য গুলোকেও এসএমএস ভোটিংয়ের আওতায় আনা হয়েছে। এর শর্ট কোড টেলিটকের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব সুনীল কান্তি বোস জানান, ২০ জুন থেকে এসএমএস করে ভোট দেওয়া যাবে। এ ভোটের জন্য প্রস্তুত গেটওয়ে নিয়ন্ত্রণ করবে টেলিটক। এসএমএসের জন্য দু টাকা করে চার্জ নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সঙ্গে ৩০ পয়সা ভ্যাট যুক্ত হবে। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহম্মেদ রাজু বলেন, এই এসএমএস ভোটিং বিনা মাশুলে করা গেলে ভালো হতো। কিন্তু নানা কারণে সেটি সম্ভব হয়নি। এই ভ্যাট মওকুফ করতে তিনি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে কথা বলবেন বলেও জানান মন্ত্রী।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, টেলিফোন ভোটে খরচ বেশি, তাই আমরা নিউ সেভেন ওয়ান্ডার্স ফাউন্ডেশনের কাছে এসএমএস ভোটের সুবিধা চাইলাম। তারা রাজি হওয়ায় এই চুক্তি হলো। জ্যঁ পল দ্য লা ফঁতে বলেন, বাংলাদেশের মানুষের উৎসাহে আমি মুগ্ধ। আমরা এ দেশের মানুষের আর্থ-সামাজিক সামর্থ এবং প্রকৃতির প্রতি তাদের টান অনুভব করে এসএমএস ভোটিং সুবিধা দেওয়ার বিষয়ে একমত হয়েছি। অনুষ্ঠানে বিটিআরসি চেয়ারম্যান জিয়া আহমেদ প্রমুখসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সুন্দরবনকে সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে এসএমএসেও ভোট দেয়া যাবে

সুন্দরবনকে প্রাকৃতিক সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে মোবাইল ফোনে এসএমএস’র মাধ্যমে ভোট দেয়া যাবে। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসছে। আজ রোববার সচিবালয়ে নিউ সেভেন ওয়ান্ডার ফাউন্ডেশনের পরিচালক জেন-পল ডি লা ফন্টে’র সাথে বৈঠক শেষে পরিবেশ ও বন প্রতিমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। দু’একদিনের মধ্যে সেভেন ওয়ান্ডার ফাউন্ডেশনের সাথে এ বিষয়ে একটি চুক্তি হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইন্টারনেটে ভোট দেয়ার ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা রয়েছে। এসএমএস’র মাধ্যমে ভোট দেয়া অনেক সহজ হবে। একমাত্র বাংলাদেশই এসএমএস’র মাধ্যমে ভোট দেয়ার জন্য ফাউন্ডেশনের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে। তিনি আরো বলেন, ভারতের তারকা ব্যক্তিদের বাংলাদেশে এনে ও বাংলাদেশের তারকা ব্যক্তিত্বদের ভারতে নিয়ে সুন্দরবনের পক্ষে জনমত গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হবে। এসএমএস’র মাধ্যমে ভোট দেয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত হওয়ার পর সুন্দরবনকে সপ্তাশ্চর্য নির্বাচনে সবাইকে জোরালো ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।
জেন-পল ডি লা ফন্টে বলেন, সুন্দরবনকে সপ্তাশ্চর্য নির্বাচন করতে বাংলাদেশের মানুষ অনেক আন্তরিক। এদেশের গণমাধ্যমেগুলো অগ্রণী ভূমিকা রাখছে। সপ্তমআশ্চর্য ভোটদান পদ্ধতি আরো সহজ করতে এসএমএস পুল চালু করতে আমরা সম্মত।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s