self girvএখনও মারা যাননি তিনি। তবুও আগে ভাগেই প্রস্তুতি নিয়েছেন। মারা যাওয়ার পর শেষ আশ্রয়ের জন্য নিজের কবর তৈরি করে রেখেছেন। শুনতে অবাক লাগলেও এমন ঘটনা কিন্তু সত্যিই ঘটেছে। নিজের হাতে কবর খুড়ে, বাঁধাইও করেছেন।এমনকি নামফলক পর্যন্ত বসিয়ে নিজের কবরটি স্থায়ীভাবে প্রস্তুত করেছেন জুমা আলতুন নামের এক তুর্কি নাগরিক। তুরস্কের পূর্বাঞ্চলীয় শহর কাহরামানমারাসে বসবাসকারী আলতুন (৭২) নামের ওই ব্যক্তি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি।
নিজের হাতে প্রায় এক সপ্তাহ পরিশ্রমের পর নিজেই খনন করেছেন নিজের কবর। বাঁধাইও করেছেন কবরের ভেতরের চারদিকের দেয়াল। সমাধি প্রস্তর তৈরি করে বড় অক্ষরে মৃত বাবা মায়ের নামের পর নিজের নাম ও জন্ম সালসহ লিখেছেন তিনি।
পেশাগত জীবনের প্রথম ১৫ বছর পালোয়ান এবং বাকি ৪৮ বছর রাজমিস্ত্রি হিসেবে কাজ করছেন আলতুন। কবরের সঙ্গে নিজের কর্মকাণ্ডের এসব তথ্যও লিখে দিয়েছেন তিনি যেন মানুষ তার সম্পর্কে জানতে পারেন।
এ প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, কবর দেখলে ভয়ে গুনাহের কাজ থেকে দুরে সরে যায় মানুষ। আর তা যদি হয় নিজেরই কবর তাহলে তো কথাই নেই। তিনি জানিয়েছেন শেষ ঠিকানার জায়গাটি বানাতে তিনি খরচ করেছেন প্রায় ৪শ মার্কিন ডলার। তিনি যে ঘরে থাকেন তার থেকে মাত্র ৪শ মিটার দুরেই বানিয়েছেন নিজের সমাধি।
তবে তিনি যে শুধু নিজের জন্য সমাধি তৈরি করেছেন তা নয় নিজের স্ত্রী হায়রিয়ে আলতুনের জন্যও বানাতে চেয়েছিলেন একটি কবর। তবে তার স্ত্রী খুব বেশি ভীত হওয়ায় অনুমতি পাননি আলতুন। তবুও হাল ছাড়েননি তিনি, যে কোন সময় স্ত্রীর কবরের নির্মাণকাজ শুরু করার গোপন পরিকল্পনাও রয়েছে তার।