afgan sthanশেষ ওভারের নাটকীয়তায় দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান।ফরম্যাট বদলালেও শারজায় জিম্বাবুয়ের ভাগ্যে কোন বদল হলো না। লাগাম ধরতে পারল না আফগানদের জয়রথে। ওয়ানডে সিরিজ খোয়ানোর পর টি২০তেও হার দিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছে তাদের। শুক্রবার রাতে টি২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে ৫ রানে হেরে গেছে জিম্বাবুয়ে। আফগানদের ছুঁরে দেওয়া ১৮৮ রানের লক্ষ্য অতিক্রম করতে গিয়ে জিম্বাবুয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮২ রান তুলতে সমর্থ হয়। ফলে দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল আফগানরা।
শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৮৭ রান করে আফগানিস্তান। জবাবে ধীরে ধীরে লক্ষ্যে এগোতে থাকা জিম্বাবুয়ের শেষ ওভারে দরকার ছিল ২১ রান।শেষ ওভার করতে আসা দৌলত জাদরান একটি ‘ওয়াইড’ ও দুটি ‘নো বল’ দেন। আর সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে আট নম্বরে ব্যাট করতে নামা লুক জংগুই একটি করে চার-ছক্কায় লড়াই জমিয়ে তোলেন। শেষ বলে দরকার ছিল ছক্কার, এখানে বিজয়ী জাদরান, জংগুইকে গুলবাদিন নাইবের ক্যাচ বানিয়ে দলকে দারুণ এক জয় এনে দেন।৩২ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়ে জাদরানই আফগানদের সেরা বোলার।
শুরুতে উদ্বোধনী জুটিতে মোহাম্মদ শাহজাদ ও উসমান ঘানির নৈপুণ্যে আফগানিস্তানের ইনিংসের সূচনাটা হয় দারুণ, ৬.২ ওভারে ৬৩ রান করে তারা।১৭ বলে ২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৩৩ রান করেন শাহজাদ। আর ঘানি ৩৮ বলে ৫টি চার ও ১টি ছক্কায় ৪২ রান করেন।এরপর নিয়মিত বিরতিতে চারটি উইকেট হারালেও মোহাম্মদ নবি ও গুলবদিন নাইবের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বড় ইনিংস গড়ে আফগানরা।
নবি ১১ বলে ১টি চার ও ৩টি ছক্কায় ২৬ রান করেন। আর নাইব ২০ বলে ৩৭ রান করতে ২টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন। নয় নম্বরে নামা রশিদ খানের অবদানও কম নয়; ৫ বলে ১টি করে চার ও ছক্কায় ১৪ রান করে অপরাজিত। স্পিনার গ্রায়েম ক্রেমার ১৭ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন।
বড় লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান পিটার মুরকে হারায় জিম্বাবুয়ে। এরপর হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও চামু চিবাবা প্রয়োজনীয় রানের গতি ধরে রাখলেও তারা ইনিংস বড় করতে পারেনি।
মাসাকাদজা ২৪ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৩ রান করেন। আর চিবাবা ১০ বলে করেন ১৮ রান।
তবে মূলত একাই দলকে জয়ের পথে রাখেন ম্যালকম ওয়ালার। ৩৭ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় ৪৯ রান করে রোমাঞ্চকর জয়ের সম্ভাবনাও জাগান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেনি জিম্বাবুয়ে। ৭ উইকেটে ১৮২ রানে থেমে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস।
ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজেও তাই শুভসূচনা করলো আফগানিস্তান। একই মাঠে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি হবে আগামী রোববার।