bell & zidanরিয়াল মাদ্রিদে জিনেদিন জিদান যুগের দুর্দান্ত এক সূচনাই হল। গ্যারেথ বেলের অসাধারণ হ্যাটট্রিকে দেপোর্তিভো লা করুনাকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর এ ম্যাচের মধ্যেদিয়ে রিয়ালের মূল কোচ হিসেবে শুরুটা দারুণ করলেন কিংবদন্তি জিনেদিন জিদান। এদিন দলের হয়ে জোড়া গোল করেন স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা।
শনিবার রাতে ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গ্যারেথ বেল হ্যাটট্রিক করেন। আর জোড়া গোল করেন জিদানের স্বদেশী স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা।
উড়ন্ত জয়ে স্প্যানিশ লা লিগার শীর্ষে থাকা দুদলের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান কমাতে সক্ষমে হয়েছে রিয়াল। এখন শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার সঙ্গে রিয়ালের পয়েন্ট ব্যবধান দুই। যদিও বার্সা এক ম্যাচ কম খেলেছে।  ১৯ ম্যাচে রিয়ালের পয়েন্ট ৪০। আর ১৮ ম্যাচে বার্সা ৪২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। বার্সার সমান ম্যাচে অ্যাটলেটিকো ৪১ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে।
গত সপ্তাহেই স্প্যানিশ কোচ রাফায়েল বেনিতেজের স্থলাভিষিক্ত হন জিদান। এরপরই শুনা যাচ্ছিল হয়তো গ্যারেথ বেলকে রিয়াল থেকে বিক্রি করে দেয়া হবে। যদিও জিদান এ ধরনের গুঞ্জন অস্বীকার করেছে। তবে জিদান ‍যুগের সূচনাতেই বেল দুর্দান্ত পারফর্ম করে সেসব গুঞ্জনকে তুড়ি মেরে উড়িয়েই দিলেন বলা যায়।
খেলা শুরুর ১৫ মিনিটের মধ্যেই গোল করে দলকে এগিয়ে নেন বেনজেমা। এর সাত মিনিট পর প্রথম গোল করেন ওয়েলস তারকা বেল। এই দুজনের গোলেই প্রথমার্থটা ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ হয় রিয়ালের। দ্বিতীয়ার্ধে যেন বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন বেল। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর ১৮ মিনিটের মধ্যে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন এই ওয়েলস তারকা। খেলার অন্তিম মুহূর্তে যোগ করা সময়ে দিপার্তিভোর কফিনে শেষ পেরেক ঠুকেন বেনজেমা। সেই সুবাদে রিয়াল ৫-০ গোলের দুর্দান্ত জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে।
হ্যাটট্রিকের সুবাদে লা লিগায় দুর্দান্ত যাত্রা অব্যাহত রয়েছে বেলের। কারণ শেষ সাত ম্যাচে লিগের তার গোলসংখ্যা ১০টি। শুরুতে প্রতিপক্ষের উপর চাপ সৃষ্টির চেষ্টা করে দিপার্তিভোও। মাত্র ১১ মিনিটে কেইলর নাভাস গোলের সুযোগ পেয়েও মিস করেন। তবে জিদানের রিয়ালকে গোলের সূচনা এনে দেন বেনজেমা। টনি ক্রুসের কর্নার ঠিক মতো ক্লিয়ার করতে পারেনি দিপার্তিভোর রক্ষণভাগ। সেই সুযোগে গোল আদায় করে নিতে সক্ষম হন এই ফরাসি স্ট্রাইকার।
রিয়াল অনেকটাই নিশ্চিন্ত হয় বেলের গোলে। বাঁ দিক থেকে দানি কার্ভাজালের ক্রসে দুর্দান্ত এক হেডে দলকে ২-০ গোলে এগিয়ে দেন বেল। প্রথমার্ধে দুই গোল এগিয়ে থেকেও রিয়ালের গোলক্ষুধা শেষ হয়নি। তাই দ্বিতীয়ার্ধটা আরো আক্রমণাত্মক হয়ে রইল রিয়াল। তবে দলটির এমন জয়ের দিনেও গোল পাননি পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।
কোচ হিসেবে বড় জয়ে শুরু করতে পেরে খুশি জিদানও। তিনি বলেন, ‘ম্যাচ জিতলে একজন কোচ খুশি হওয়ারই কথা। আমার ক্ষেত্রেও তাই। যারা ম্যাচে খেলেছে এবং খেলে নাই সবার মনোভাবই ছিল দুর্দান্ত। দিপার্তিভোর মতো দলের বিপক্ষে ৫-০ গোলের জয় সহজ কিছু নয়। চারদিনের অনুশীলন শেষে প্রথম ম্যাচেই এমন জয়ে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।’