যে শহরে ৩০ বছর পর জন্ম নিল শিশু


Ostanaইতালির উত্তরাঞ্চলের ছোট্ট শহর ওস্তানা, যেখানে জনসংখ্যা ছিল মাত্র ৮৪ জন। তবে দীর্ঘ ৩০ বছর পর এক শিশু জন্ম নেয়ায় সেই সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫-তে। গত একশো বছর ধরেই ওসতানা শহরের জনসংখ্যা কমছিল। শহরটির মেয়র গিয়াকোমো লোমবার্ডো জানান, গত শতকের শুরুতে ওসতানার জনসংখ্যা ছিল প্রায় এক হাজার। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে শহরের জনসংখ্যা কমতে থাকে।
ইতালির স্থানী এক পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেয়র বলেন, ‘১৯৭৫ সাল থেকে শহরের জনসংখ্যা দ্রুত কমতে থাকে। ১৯৭৬ থেকে ১৯৮৭ সালের মধ্যে এই শহরে জন্ম নেয় মাত্র ১৭টি শিশু। আর ১৯৮৭ থেকে ১৯১৬ সাল, এ ৩০ বছরে জন্ম নিয়েছে মাত্র একটি শিশু। তার নাম রাখা হয়েছে পাবলো।’
অবশ্য ইতালির বেশিরভাগ ছোট শহরেই এ একই গল্প শোনা যাবে। মূলত তরুণরা কাজের সন্ধানে ছোট শহর ছেড়ে পাড়ি জমায় বড় শহরে। ফলে জনশূন্য হয়ে পড়ছে ছোট ছোট শহরগুলো।
পাবলোর বাবা জোসে এবং মা সিলভিয়াও এই শহর ছেড়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন। কিন্তু কাছাকাছি একটা কাজের প্রস্তাব পাওয়ার পর তারা থেকে যান।
এদিকে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরির মাধ্যমে ওসতানা শহরের জনসংখ্যা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন মেয়র গিয়াকোমো লোমবার্ডো।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s