ronaldo-Zidaneকোচ হিসেবে যোগ দেওয়ার অল্প দিনেই রিয়াল মাদ্রিদের ঘুরে দাঁড়ানোয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা জিনেদিন জিদানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। লা লিগায় রোববার রাতে এসপানিওলকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পর ‘জিদান দারুণ কাজ করছে’ বলে জানান রোনালদো।
কোচের প্রশংসায় স্পেনের একটি টিভি চ্যানেলকে রোনালদো বলেন, “জিদান ভিন্ন কিছু ধারণা নিয়ে এসেছেন এবং আমরা অনেক ভালো বোধ করছি। তিনি বিস্ময়কর কাজ করছেন, তিনি দারুণ করছেন।”
এ বছরের শুরুতে রাফায়েল বেনিতেসকে বরখাস্ত করে প্রধান কোচ হিসেবে জিদানকে নিয়োগ দেয় রিয়াল কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকে ফরাসি এই কোচের অধীনে লিগে চার ম্যাচে খেলে তিনটিতে জিতেছে ও একটিতে ড্র করেছে মাদ্রিদের ক্লাবটি। এ সময়ে মোট ১৭টি গোল করে তারা।রোববারের এই জয়ের পর লা লিগায় তৃতীয় স্থানে থাকা রিয়ালের পয়েন্ট ২২ ম্যাচে ৪৭। সমান ম্যাচে আতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৪৮।
শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৫১। এক ম্যাচ কমও খেলেছে কাতালান ক্লাবটি।

এদিকে চলতি মৌসুমে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে বেশ কয়েকবারই সমালোচার সম্মুখীন হন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দলের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে ব্যর্থ হচ্ছেন বলেই যত বিপত্তি! কিন্তু, সর্বশেষ ম্যাচে এসপানিওলের বিপক্ষে দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করে যেন সমালোচকদের পাল্টা জবাব-ই দিলেন সিআর সেভেন।
মাঠের খেলায় এমন পারফরম্যান্সে রোনালদোর ভূয়সী প্রশংশা করলেন কোচ জিনেদিন জিদান। ফ্রেঞ্চ কিংবদন্তির মতে, সব সমালোচনা ভুল প্রমাণ করেছেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রোববার (৩১ জানুয়ারি) রাতের ম্যাচটিতে এসপানিওলকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয় গ্যালাকটিকোরা।
এদিকে, হ্যাটট্রিকের সুবাদে লা লিগায় সর্বোচ্চ গোলদাতা লুইস সুয়ারেজকে ছুঁয়ে ফেলেন রোনালদো। ২০১৫-১৬ মৌসুমে এখন পর্যন্ত দু’জনই প্রতিপক্ষের জালে ১৯ বার বল জড়িয়েছেন। বলা যায়, সমালোচনা পেছনে ফেলে জিদানের অধীনে সময়টা বেশ উপভোগই করছেন তিনবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো।
দলে রোনালদোর অবদানে জিদান রীতিমত উচ্ছ্বসিত, ‘আমরা রোনালদোকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারছি। সে অনেক গোল করছে। কিন্তু, গোল করতে ব্যর্থ হলেই অনেকের চোখে সে ভালো পারফরম্যান্স করছে না বলে ধারণা জন্মায়। এটা ভবিষ্যতেও থাকবে।’
ফ্রেঞ্চ কিংবদন্তি যোগ করেন, ‘রোনালদো যদি ম্যাচে গোলস্কোর করতে নাও পারে তাতেও কোনো সমস্যার অবকাশ নেই। সে খুবই উচ্চকাঙ্ক্ষী এবং প্রতিনিয়তই কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে।’