আইফোনের ‘আই’ দিয়ে কী বোঝায়?


iphone-logoইংরেজি বর্ণামালার আই (i) সম্ভবত পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি বর্ণ। কিন্ত  আইফোনে (iPhone) ‘আই’ কী অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে তা বোধ হয় তাবৎ দুনিয়ার মানুষের কাছে অস্পষ্ট একটি ব্যাপার। আই বর্ণটি আইফোনের ক্ষেত্রে মূল শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য। অনেকেই মনে করে থাকেন এই ‘আই’ অর্থ ‘ইন্টারনেট’। কিন্ত এটি সঠিক নয় বরং ‘আই’- এর গল্পটি আরো বেশি জটিল।
‘আই’ উপসর্গটি প্রথম ব্যবহৃত হয় ১৯৯৮ সালে কম্পিউটার ‘আইম্যাক’-এর বাণিজ্যিক প্রচারের সময়। তখন অ্যাপলের আধুনিক সব পণ্য বাজারে আসতে শুরু করেছে মাত্র।
এই কম্পিউটারের পরিচিতি দিতে গিয়ে স্টিভ জবস বলেন ‘এই মেশিনটি বানানোই হয়েছে তাদের জন্য, যারা খুব ভালো ইন্টারনেট এক্সপিরিয়েন্স পেতে চান, তাদের কথা মাথায় রেখে।’ এটি মূলত ইন্টারনেট সার্ভিসকে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করে কম্পিউটার বিজ্ঞাপনের প্রসার বাড়ানোর জন্য বাজারে ছাড়া হয়েছিল।
স্টিভ জবস আরো বলেন ‘যদিও এটা পুরোপুরি ম্যাকিনটোশ, তারপরও আমরা চাই যারা কম্পিউটারের মাধ্যামে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চান, তাদের পছন্দের তালিকায় এক নম্বরে থাকুক এটি। তারা যেন বলেন, হ্যাঁ আমরা এমন একটি যন্ত্রই খুঁজছিলাম এতদিন!’
এ থেকে মনে হতে পারে ‘আই’-এর  অর্থ বুঝি ইন্টারনেট। কিন্ত খোদ স্টিভ জবস নাকচ করে দেন সে সম্ভাবনা। তিনি কিছু তথ্যচিত্রের মাধ্যমে দেখান, ‘আই’-এর অর্থ হতে পারে ‘ইন্টারনেট, ইনডিভিজুয়াল, ইন্সট্রাক্ট, ইনফর্ম, ইন্সপায়ার’ প্রভৃতি।
‘আই’ আমাদের কাছে আরো কিছু অর্থ নিয়ে আসে বলেও জানান স্টিভ জবস। তিনি বলেন ‘আমরা একটি পারসোনাল কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ! ‘আই’-এর একটি সুন্দর অর্থ হতে পারে ‘আমি’! বর্তমানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোও আমাদের কম্পিউটার ব্যবহার করছে। সুতরাং আমরা বলতে পারি ‘আই’ অর্থ ‘ইন্সট্রাকশন’।
তথ্য প্রযু্ক্তির প্রতিষ্ঠান অ্যাপল তাদের পণ্যের নামে ছোট হাতের আই (i) ব্যবহার করে থাকে। যেমন- সফটওয়্যার ‘আইটুলস’ এবং হার্ডওয়্যার ‘আইপড’। কিন্ত এত সবের পরে এটি পরিষ্কার নয়, আদতে আইপড নামটি কোথা থেকে গৃহীত হয়েছে। অ্যাপলের আইফোনেরও রয়েছে আইম্যাকের মতো জনপ্রিয়তা, যা অ্যাপলকে শক্তিশালী ভিত্তির ওপর দাঁড় করিয়েছে। কিন্তু শুরুর দিকে ঘড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ক্যাসিও-এর সঙ্গে আইনি ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিল অ্যাপল। কারণ আগে থেকে ক্যাসিওর একই নামে আরেকটি পণ্য ছিল।
‘আই’ উপসর্গটি সাম্প্রতিক সময়ে তার জৌলুশ কিছুটা হারিয়েছে। কারণ অ্যাপল ‘আই’ বর্ণটি বাদ দিয়েও বেশ কিছু পণ্য বাজারে আনছে। যেমন- অ্যাপল টিভি, অ্যাপল ঘড়ি ইত্যাদি যাতে ‘আই’-এর পরিবর্তে কোম্পানির মূল ব্র্যান্ড অ্যাপল এবং বিখ্যাত আধা খাওয়া আপেল এখন অনেক বেশি উজ্জ্বল দেখায়।

Advertisements
This entry was posted in Mobile (মোবাইল), Since (বিজ্ঞান). Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s