sanjay_duttআগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি সকালটা সঞ্জয় দত্তের জীবনটা শুরু হবে নতুনভাবে। ওইদিন সকাল ৯টায় পুনের ইয়েরওয়াড়া কারাগার থেকে মুক্তি পাচ্ছেন তিনি। কারাগার থেকে তাকে ছেড়ে দেওয়ার খবরটি সোমবার  কারা কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেছে।
১৯৯৩ সালে মুম্বাই সন্ত্রাসী হামলা মামলায় জড়িত থাকার অপরাধে বর্তমানে পুনের ইয়েরওয়াড়া জেলে কারাভোগ করছেন বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। দীর্ঘদিন কারাভোগ শেষে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার মুক্তি পাচ্ছেন এ অভিনেতা।
এ তারকার মুক্তি উপলক্ষে পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ছোট অনুষ্ঠানের আয়োজনের আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু প্রচুর ভক্ত এবং মিডিয়ার আনাগোনা হতে পারে তাই নিরাপত্তাজনিত কারণে তা বাতিল করেছে জেল কর্তৃপক্ষ।
গত বছরের জুনে সঞ্জয়ের মুখপাত্র ভালো ব্যবহারের জন্য তার আগাম মুক্তির কথা জানান। ১৯৯৩ সালের ১২ মার্চ মুম্বাইয়ে ধারাবাহিক বোমা বিস্ফোরণে জড়িতদের কাছ থেকে বেআইনি অস্ত্র কেনার দায়ে পাঁচ বছরের সাজা ভোগ করেছেন সঞ্জয় দত্ত।
১৯৯৬ সালে কারাদন্ড দেওয়া হয় সঞ্জয়কে। দেড় বছর জেল খেটে জামিনে মুক্তি পান তিনি। ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্ট থেকে তাকে পাঁচ বছরের সাজা পূর্ণ করার আদেশ দেন। এরপর থেকে ৪২ মাসের সাজা ভোগ করছিলেন তিনি।
তবে বারবার প্যারোলে সঞ্জয়ের মুক্তি বিতর্কিত হয়েছে। ২০১৩ সালের অক্টোবরে ১৪ দিনের ছুটি পেয়ে পরে আরও সাতদিন তা বাড়িয়ে নেন তিনি। পরের বছরের জানুয়ারিতে প্যারোলে এক মাসের ছুটি মেলে তার। পরে তা আরও ৩০ দিন বাড়িয়ে নেন পর্দার ‘মুন্নাভাই’।
২০১৪ সালে ডিসেম্বরে পরিবারের সঙ্গে ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনের জন্য আবার ছুটি চান সঞ্জয়। গত বছরের আগস্টে কন্যা ইকরার নাকে অস্ত্রোপচারের কারণ দেখিয়ে ৬০ দিন জেলের বাইরে ছিলেন তিনি।