TIB Iftekhar (Singbad Sommelon) copyখেলোয়াড়ের সংখ্যা অনুযায়ী বিশ্ব ক্রিকেটে ম্যাচ ফিক্সিংয়ে প্রথম হয়েছে পাকিস্তান এবং দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। এ পর্যন্ত এই দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন পাকিস্তানের ৬ জন এবং ভারতের ৫ জন খেলোয়াড়। যেখানে বাংলাদেশের হয়ে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের তালিকায় আছেন একজন।
ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) কর্তৃক ক্রীড়াঙ্গনে বৈশ্বিক দুর্নীতির প্রতিবেদনে এই চিত্র উঠে এসেছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টায় রাজধানীর ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) কার্যালয়ে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন।
ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিষয়টি বহু পুরানো। ১৯৯৪-৯৫ থেকে এই দুর্নীতির উত্থান শুরু হয়। প্রথমে এই দুর্নীতি নজর কাড়ে ১৯৯৮ সালে। অস্ট্রেলিয়ার দুইজন খেলোয়াড় শেন ওয়ার্ন এবং মার্ক ওয়াহ এই দুর্নীতির মাধ্যমে আলোচনায় আসেন। পরে একাধারে দক্ষিণ আফ্রিকার ৪ জন, নিউজিল্যান্ডের ১ জন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১ জন, শ্রীলঙ্কার ১ জন, কেনিয়ার ১ জন এবং বাংলাদেশের ১ জন খেলোয়াড় এই দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। এদের সবারই বিচারকার্য শেষে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তিও হয়েছে।’