bd vs indমাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি বাংলাদেশ-ভারত মহারণের। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামবে দুই প্রতিবেশি রাষ্ট্র। প্রথমবারের মতো টি২০ ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপের মূল পর্বে মোট ৫টি দল অংশ নেয়। যদিও মূল পর্বের আগে বাছাইপর্বে অংশ নেয় ৪টি দল যথাক্রমে আফগানিস্তান, ওমান, হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। বাছাইপর্বে উত্তীর্ণ হয়ে মূল পর্বের টিকিট পায় আরব আমিরাত।
২০১২ সালের এশিয়া কাপ বাংলাদেশের জন্যে ছিল স্বপ্নের মতো। স্বপ্নের শুরুটা ছিল হার দিয়ে। পাকিস্তানের বিপক্ষে হার দিয়ে শুরু করা বাংলাদেশ পরবর্তীতে ভারত ও শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। কিন্তু হট ফেভারিটের ফাইনালে মধুর সমাপ্তি হয়নি। স্বপ্নভঙ্গ হয় কোটি বাঙালির। ফাইনালের দিনটি পুরো বাংলাদেশ ‘অঘোষিত সরকারি ছুটি’ বানিয়ে ফেলেছিল কিন্তু সে রাতটি হয়েছিল অনেক আক্ষেপের। মাশরাফি, মুশফিক ও সাকিবদের কান্না সেদিন কাঁদিয়েছিল ক্রিকেটপ্রেমীদের। চারবছর পর আবার এক গোটা বাংলাদেশ।
২০১২ এশিয়া কাপের সঙ্গে এবারের এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টির অনেকটা মিল রয়েছে। টানা তৃতীয়বারের মতো আয়োজকের ভূমিকায় থাকা বাংলাদেশ আবারো নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে হারের তিক্ত স্বাদ গ্রহণ করে। প্রতিপক্ষ ছিল ভারত। কিন্তু পরবর্তী ম্যাচগুলোকে দৃশ্যপট পরিবর্তন। এশিয়া কাপের নতুন দল সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারিয়ে সঠিক পথে ফিরে আসে বাংলাদেশ। এরপর ক্রিকেটের দুই পরাশক্তি শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। ফাইনালে বাংলাদেশর প্রতিপক্ষ ভারত। ২০১২ সালেও ঘটেছিল এ রকমটি। পাকিস্তানের বিপক্ষে হার দিয়ে শুরু, অতপর ফাইনালে পাকিস্তান। এবারও কি ভাগ্যদেবি মুখ তুলে তাকাবেন না?
ভাগ্যদেবি বাংলাদেশের দিকে মুখ তুলে তাকান, আর নাই তাকান- ফাইনালে দুই দলের লড়াই বাড়তি মাত্রা ছড়িয়েছে। প্রথমত, টিকেট নিয়ে। ২৫ হাজার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন মিরপুর স্টেডিয়ামের টিকেট নিয়ে হাহাকার। সাধারণ দর্শক থেকে শুরু করে ক্রিকেটাররাও চাহিদামত টিকেট পাননি। দ্বিতীয়ত, ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল। সেবার আম্পায়ারের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে বাংলাদেশ ভারতকে হারাতে পারেনি। কিন্তু তারপর ঘরের মাঠে প্রতিশোধ নিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু বৈশ্বিক কোনো টুর্নামেন্টের নক আউটে খেলা হয়নি দুই চেনা প্রতিপক্ষের। ফাইনাল দিয়ে সেই লড়াইয়ে তারা।
রোববার বাংলাদেশের ক্রিকেটের একটি লাকি দিনও বটে। সকাল থেকেই উত্তেজনায় ফুটছে দু’দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। ফাইনালে জয়ের মুকুট শেষ পর্যন্ত কার মাথায় উঠবে এই নিয়ে চলছে পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তিতর্ক। যদিও পরিসংখ্যান বিচারে ভারত অনেক এগিয়ে এ নিয়ে সন্দেহের অবকাশ যেমন নেই, তেমনি বাংলাদেশ যে এখন পরিণত দল তা ক্রিকেটবোদ্ধারা ইতোমধ্যেই মানতে বাধ্য হয়েছেন। আর পরিসখ্যান যে সবসময় সঠিক ভবিষ্যদ্বাণী করে না তা কিন্তু চলতি এশিয়া কাপেই প্রমাণিত। সেক্ষেত্রে দলটা যেই হোক না কেন এ নিয়ে টাইগারদের তেমনটা মাথাব্যথা নেই।
ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে টাইগার দলপতির বক্তব্যে এমন ইঙ্গিতই মিলেছে। তিনি যেমন প্রতিপক্ষকে সম্মানসূচক মূল্যায়ন করেছেন তেমনি হুংকারও দিয়েছেন। ম্যাচ জয়ের ক্ষুধা যে মাশরাফিদের কম নাই তা প্রত্যেকের শারীরিক অভিব্যক্তিই প্রমাণ করে।
সোশ্যাল মিডিয়াতেও আজকের খেলা নিয়ে অনবরত বাকযুদ্ধ চলেছে। ফাইনালে ওঠার পর থেকেই তেঁতে রয়েছেন মাশরাফি-তামিমরা। যেভাবে এশিয়া কাপ থেকে পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কাকে একেবারে মাঠের বাইরে ছুড়ে ফেলে দিল বাংলাদেশ, তা প্রশংসনীয়। কিন্তু এই অসাধারণ পারফরম্যান্সের জন্য আবেগের জোয়ারে ভাসতে চান না মাশরাফিরা। বরং অনেক বেশি ঠান্ডামাথায় মাঠের যুদ্ধ চালিয়ে যেতে চান।
টি২০ খেলায় নিজেদের দিনে সবকিছুই সম্ভব। মাত্র তিন ঘণ্টার ম্যাচে ঘটে যেতে পারে অনেক কিছুই। বাংলাদেশের বিশ্বমানের পেস অ্যাটাক ও অলরাউন্ডিং পারফরমেন্সে বিশ্বের যে কোন দলকেই বধ করতে পারে বাংলাদেশ।
অপরদিকে স্বাগতিকদের রুখে দিতে প্রস্তুত ধোনিরা। টি-২০তে এই মুহূর্তে শীর্ষে থাকা ভারত ছক আঁকছেন প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে। ধোনির তিন অস্ত্রকে বুমরা, নেহরা, অশ্বিনের পাশাপাশি যুবরাজ সিং ও জাদেজা ভারতীয় বোলিংয়ের গুরুদায়িত্ব পালন করবেন। আর ব্যাটিংয়ে তো আছেই তাদের বিশ্বমানের ব্যাটিং লাইনআপ।
তবে বিশ্লেষণ যাই হোক না কেন দেশজুড়ে এখন একটাই স্লোগান- পাকিস্তান গেছে, শ্রীলঙ্কা গেছে, এবার ভারতের পালা। ২০১২-র এশিয়া কাপে ভারত বধের পুনরাবৃত্তি করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ টাইগার বাহিনী। সে ম্যাচে এই মিরপুরেই ভারতকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল সাকিব-তামিমরা। আজ তার পুনরাবৃত্তি ঘটাবে বাঘেরা নাকি এবার সেই হারের বদলা নেবে ভারত! জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েকটা ঘণ্টা।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s