facebook-policy.jpgসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন সবচেয়ে গতিশীল সংবাদমাধ্যম। কোনো ঘটনা ঘটলে নিউজ সাইটগুলোতে না যতক্ষণে পাওয়া যায় তার চেয়ে ঢের আগে পাওয়া যায় ফেসবুক সাইটে। বেশিরভাগ সময় আমাদের ফেসবুক হোমপেজে নানা ধরনের খবরের লিংক ভরে থাকে। এর মধ্যে কিছু থাকে খুবই মজার। নজরকাড়া এ খবরগুলো দেখেই আমরা শেয়ার করে থাকি।
কিন্তু যে খবরটি আপনি পড়ছেন, তা আসলে কতটুকু সত্য? ফেসবুকে লাইক পাওয়ার জন্য অনেকে নকল খবর দিয়ে থাকে। এগুলো বিশেষ একটি অনলাইন টুলের কারসাজি। অনলাইন টুলের বিশেষ এই সাইটির নাম ‘ক্লোন জোন’। নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে, এটি ক্লোন অর্থাৎ অবিকল আরেকটি তৈরি করতে পারদর্শী।
ক্লোন জোন (http://clonezone.link/)-এর মাধ্যমে বিশ্বের বেশ কিছু খ্যাতনামা সংবাদমাধ্যমের খবরকে যে কেউ চাইলেই খুব সহজেই খবরের শিরোনাম, লেখা, ছবি, ফ্রন্ট পরিবর্তন করতে পারে। অর্থাৎ খ্যাতনামা নিউজ পেপারের খবরগুলোকে পরিবর্তন করে নিজের মতো করে শেয়ার করা যায়!
এদিকে খ্যাতনামা নিউজ পেপারগুলোর নামেই তা ফেসবুকে শেয়ার হওয়ায়, অনেকেই খবরগুলো বিশ্বাস করে বসেন এবং বিভ্রান্তিতে পড়ে।
সুতরাং জেনে নিন, কীভাবে বুঝবেন, ফেসবুকে আপনার হোমপেজে থাকা কোনো খ্যাতনামা খবরের লিংকটি আসল নাকি নকল?
যেমন ধরুন আপনি যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় পত্রিকা মেট্রো’র একটি খবর দেখলেন। খবরটি সতিকার অর্থেই মেট্রো’র হয়ে থাকলে, তা http://www.mirror.co.uk লিংকের মাধ্যমে থাকবে। কিন্তু যদি ক্লোন জোন ওয়েবসাইটির মাধ্যমে নকল করে তৈরি করা হয়ে থাকে, তাহলের তার লিংক হবে এমন: http://www.mirror.co.uk.clonezone.link.।
সুতরাং ফেসবুকে যদি খুবই আশ্চর্যজনক বা চমকপ্রদ কোনো খবর দেখেন, তাহলে তা শেয়ার করা আগে ওয়েব অ্যান্ড্রেস চেক করে নিন।