masrafi_bg_959036919ফাইনালটা জিতলে আজকের দিনটি বাংলাদেশের জন্য ভিন্ন রকম হতে পারত। ভিন্ন রকম হতে পারত বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের জন্য। কিন্তু সেটা হয়নি। বেসরিক বৃষ্টি পাল্টে দিয়েছে ফাইনালের আমেজটাই। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের শিরোপা জয়ের স্বপ্নের সলিল সমাধি হয়।
এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের কাছে হেরে যায় বাংলাদেশ। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিংয়ে সমন্বয়হীনতার কারণে স্বাগতিকরা পরাজয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। এটা যেমন সত্য, তার চেয়েও বেশি- এই টুর্নামেন্ট থেকে টি-২০তে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে বাংলাদেশ দল। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে অনভ্যস্ত একটি দল এশিয়ার কাপের ফাইনাল খেলেছে, তাও বা কম কিসে?
বৃষ্টির কারণে রোববার খেলা শুরু হল সাড়ে নয়টায়। শেষ হতে হতে প্রায় সাড়ে বারোটা। সেখান থেকে খেলোয়াড়রা যখন হোটেলে ফিরেছেন তখন রাত দেড়টা। ক্লান্তি আর হতাশা নিয়ে সকাল সকালই ঘুম থেকে উঠতে হয়েছে তাদেরকে। প্রস্তুত হয়ে সবাই রওয়ানা হন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দিকে। সেখানকার আনুষ্ঠানিকতা সেরে সাড়ে দশটায় দিল্লির উদ্দেশ্যে উড়ায় দেয় বাংলাদেশ দল। দিল্লি থেকে বাংলাদেশ দল যাবে ধর্মশালায়।
সেখানে আজ বিশ্রাম নিয়ে আগামীকাল অনুশীলন করবে। পরদিন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচ। এরপর ১১ ও ১৩ মার্চ আয়ারল্যান্ড এবং ওমানের বিপক্ষে।
এশিয়া কাপের ফাইনালের হারকে দুর্ভাগ্যজনক হিসেবে উল্লেখ করে মাশরাফি বলেন, ‘ভালো খেলেই আমরা এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছি। দুর্ভাগ্যবশত, আমরা পারিনি (শিরোপা জিততে)। আমি মনে করি যেহেতু আমরা ফাইনাল খেলেছি, তাই আমাদের কিছুটা হলেও আত্মবিশ্বাস থাকবে। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই বিশ্বকাপে খেলব। এখন দেখা যাক, কী হয়!’
টি-২০ বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলতে হলে বাংলাদেশকে বাছাইপর্ব উত্তীর্ণ হতে হবে। আপাতত দ্বিতীয় রাউন্ডকেই পাখির চোখ করেছেন বাংলাদেশ দলপতি মাশরাফি, ‘বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেলতে হবে আমাদের। আমরা আশা করি, ভালোভাবে খেলব। সেকেন্ড রাউন্ডে যেতে পারব, ইনশাআল্লাহ। সবাই দোয়া করবেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে যদি যেতে পারি, তাহলে তো অনেক বড় দলের সঙ্গে খেলা। আমরা আশা করছি, ভালো করব।’
দেশ ছাড়ার আগে সকালে সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন মাশরাফি। পাশাপাশি জানিয়েছেন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের লক্ষের কথাও। দেশ ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের প্রথম লক্ষ্য বাছাই পর্বের গ-ি পেরিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা। এই ফরমেটে আমরা তেমন ভাল করতে পারছিলাম না। কিন্তু এশিয়া কাপে বড় দুটি দলের বিপক্ষে জয় পেয়েছি। ফাইনাল খেলেছি। এটা আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। আশা করছি এই অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে কাজে লাগাতে পারব। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’
প্রসঙ্গত, ৯ মার্চ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের খেলায়zবাংলাদেশ মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে। ধর্মশালায় বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় খেলাটি শুরু হবে ম্যাচটি। বাছাইপর্বের ‘এ’ গ্রুপে টাইগারদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ আয়ারল্যান্ড ও ওমান। ১১ ও ১৩ মার্চ ধর্মশালায় যথাক্রমে আয়ারল্যান্ড ও ওমানের বিপক্ষে লড়াইয়ে নামবে মাশরাফি বাহিনী।