arin Andrew (sp rep)যুক্তরাষ্ট্রের ক্রীড়া সাংবাদিক এরিন অ্যান্ড্রুজের পোশাক বদলানোর দৃশ্য গোপনে ধারণ করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ক্ষতিপূরণ হিসাবে তাকে সাড়ে পাঁচ কোটি মার্কিন ডলার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। জুরিরা এ ঘটনার জন্য হোটেল কর্তৃপক্ষ এবং যে ব্যক্তি ভিডিও ধারণ করেছেন উভয়কেই দায়ী করেছে। ক্ষতিপূরণের এই অর্থ উভয়কেই বহন করতে হবে বলে বিবিসি জানিয়েছে।
একদিনের আলাপ আলোচনার পর জুরি বোর্ডের সদস্যরা এরিনের অনুসরণকারীকে ৫১ শতাংশ দোষী সাব্যস্ত করে। বাকি দোষ গিয়ে বর্তায় নাশভিল হোটেলের উপর। ৫ কোটি ডলারের ২ কোটি ৭০ লাখ ডলার দিতে হবে হোটেলের মালিক দুই যৌথ কোম্পানিকে।
২০০৮ সালে একটি অ্যাসাইনমেন্টের জন্য ন্যাশভিল ম্যারিয়ট হোটেলে অবস্থান করছিলেন ফক্স স্পোর্টস চ্যানেলের সাংবাদিক অ্যান্ড্রুজ। ওই সময়  শিকাগোর একটি বীমা কোম্পানির নির্বাহী মাইকেল ডেভিড ব্যারেট হোটেল কক্ষের দরজার ছিদ্র দিয়ে অ্যান্ড্রুজের পোশাক বদলানোর দৃশ্য ভিডিও করেন। পরে পাঁচ মিনিটের ওই ভিডিওচিত্রটি তিনি অনলাইনে ছেড়ে দেন। এ ঘটনায় ন্যাশভিল হোটেলের মালিক কর্তৃপক্ষ ও ব্যারেটের বিরুদ্ধে ৭ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করেছিলেন অ্যান্ড্রুজ।
ব্যারেট এর আগে আদালতে এই ভিডিও ধারণ করার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি টাকা উপার্জনের জন্য এই কাজ করেছেন বলে দাবি করেছিলেন। সেলিব্রেটি গসিপ সাইট টিএমজেডের কাছে ভিডিওচিত্রটি বিক্রি করতে ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি এটি অনলাইনে ছেড়ে দেন। আর্থিক দণ্ডের পাশাপাশি ব্যারেটকে আড়াই বছরের কারাদণ্ডও দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার পর অ্যান্ড্রুজ কেঁদে ফেলেন এবং তার আইনজীবী ও পরিবারের সদস্যদের জড়িয়ে ধরেন।
পরে তিনি টুইটারে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে  আদালত, জুরি, তার আইনজীবী এবং পরিবারকে ধন্যবাদ জানান।