চলচ্চিত্রে অবদানের স্বীকৃতি পেলেন পূর্ণিমা


Purnima amra kuriঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। এক সময় চলচ্চিত্রাঙ্গনে দাপিয়ে বেড়ালেও এখন আর সেই সরব উপস্থিতি নেই তার। তবে ইতোমধ্যে ঘরে তুলেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এবার অন্যরকম এক স্বীকৃতি পেলেন অভিনেত্রী পূর্ণিমা। চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য তাকে বিশেষ সম্মাননায় পুরস্কৃত করেছে জাতীয় শিশু-কিশোর সংগঠন আমরা কুঁড়ি।
গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে আলোচনা, সম্মাননা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এ প্রতিষ্ঠানটি। এতে পূর্ণিমার হাতে পুরস্কারটি তুলে দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এখানে প্রতিশ্রুতিশীল কণ্ঠশিল্পী হিসেবে সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন মৌটুসী পার্থ।
সংসার ও মেয়ে আরশিয়াকে নিয়ে ব্যস্ত থাকার কারনে অভিনয় থেকে বেশ দূরে রয়েছেন পূর্ণিমা। তবে সম্প্রতি ফের অভিনয় ফেরার কথা জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। যদিও আগের মতো ততটা নিয়মিত হওয়ার সুযোগ আপাতত নেই। তবে মেয়ে আর একটু বড় হলে বড় পর্দায় নিয়মিত হবেন অভিনেত্রী পূর্ণিমা।
জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ঢাকাই চলচ্চিত্রাঙ্গনে পা রাখেন পূর্ণিমা। কাজী হায়াত পরিচালিত ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিলো না’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে ২০১০ সালে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন তিনি। পূর্ণিমা অভিনীত জনপ্রিয় চলচ্চিত্র হলো- মতিউর রহমান পানু পরিচালিত ‘মনের মাঝে তুমি’ ও এস এ হক অলিক পরিচালিত ‘হৃদয়ের কথা’।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s