Hihil1যুক্তরাজ্যে হাই হিল জুতার কারণে নারীদের মধ্যে সহিংস ঘটনার পরিমান বাড়ছে। সরু মাথা আর ইস্পাত দিয়ে মোড়ানো এসব হিল নারীরা ব্যক্তিগত লড়াইয়ে রীতিমতো অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতে শুরু করেছে। যুক্তরাজ্য পুলিশের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম টেলিগ্রাফ এ তথ্য জানিয়েছে।
ব্রিটিশ পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত হাই হিল জুতা দিয়ে আঘাত করার প্রায় দেড়শ ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে। তবে বাস্তবে প্রকৃত সংখ্যা এর কমপক্ষে দ্বিগুন হবে। ওই সব ঘটনা কখনো পুলিশকে জানানো হয়নি। গত বছর এক রাতে বাইরে থাকার সময় অন্য এক নারীর সঙ্গে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন  ক্যাটরিনা কাউসিল নামে ২৯ বছরের এক তরুণী। প্রতিপক্ষের হাই হিল জুতার আঘাতে তার বাম চোখের দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়ে গেছে।  তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ওই হামলাকারী নারীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। শুধু তাই নয়, ওই হামলার ঘটনার পর নিজের চাকরিটিও হারিয়েছেন ক্যাটরিনা।
তিনি বলেন, ‘এক বছর ধরে আমি বেকার এবং আমি ঘরের বাইরে যেতে পারছি না। আমি এমন ছিলাম না। আমাকে হতাশা ও আতঙ্ক গ্রাস করছে।’
গত বছর অ্যামি সুন্দেভ নামে এক তরুণী খামোখাই এক তরুণের ওপর তার হাই হিল দিয়ে হামলা চালিয়েছিলেন। ওই তরুণকে তিনি রাস্তায় দাঁড় করিয়ে জানতে চেয়েছিলেন, জন্মদিন উপলক্ষে দুদিনব্যাপী পানোৎসবের সময় লিভারপুলের একটি বার থেকে তাকে যখন বের করে দেওয়া হয়েছিল, তখন সে ঠিকঠাক ছিলো কি না। এই নিয়ে  বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ওই তরুণকে হাই হিল দিয়ে আঘাত করেন অ্যামি। এ ঘটনায় অবশ্য তাকে ১০ মাস কারাবাস করতে হয়েছে।