ভারত না অস্ট্রেলিয়া, কে যাচ্ছে সেমিতে?


India-vs-Australiaবিশ্বকাপ শুরুর আগ থেকেই গ্রুপ-১ কে বলা হচ্ছিল গ্রুপ অব ডেথ। সেটা শুধু বলার জন্য বলা হয়নি। কার্যক্ষেত্রেও এর যথেষ্ট প্রমাণ মিলেছে। গ্রুপ-১ এর শেষ ম্যাচে নির্ধারিত হতে যাচ্ছে ভারত না অস্ট্রেলিয়া, কোন দল যাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সেমিফাইনালে। এই গ্রুপ থেকে চার ম্যাচের চারটিতেই জিতে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে অদম্য কিউইরা। মোহালিতে রোববার বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া। এখানে যেই জিতবে সেই দলই চলে যাবে শেষ চারে।
তিন ম্যাচের দুটিতেই জিতেছে দু’দল। স্কোরবোর্ডে পয়েন্ট সমান চার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার আজকের হাই-ভোল্টেজ ম্যাচে যে জিতে সে দলই সেমিফাইনালের মঞ্চে উঠবে। তাই ভারত-অস্ট্রেলিয়া আজকের মহারণটি অলিখিত কোয়ার্টার ফাইনালের মতোই।
অস্ট্রেলিয়া-ভারত দু’দলই হারিয়ে এসেছে পাকিস্তানকে। দু’দলই হারিয়েছে বাংলাদেশকে। আবার দু’দলই হেরেছে নিউজিল্যান্ডের কাছে। তবে টুর্নামেন্টে ভারতীয় নির্বাচকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পথে হাঁটেননি। যেখানে অস্ট্রেলিয়া প্রত্যেক ম্যাচেই একাদশে পরিবর্তন এনেছে।
অস্ট্রেলিয়া-ভারত সর্বশেষ সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকে লজ্জাই উপহার দিয়েছিল ভারত। জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তাদের টি২০ সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। সেদিক থেকে ভারতই ফেভারিট। কিন্তু বিশ্বকাপে ওসব পরিসংখ্যান খুব একটা কাজে আসে না। যদি তাই হতো তাহলে সবার আগে সেমিতে গিয়ে বসে থাকতো স্বাগতিকরা!
বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে শেষবার ভারতের মাটিতে স্বাগতিকদের সঙ্গে মাঠে নেমেছিল ২০১১ বিশ্বকাপে। আহমেদাবাদের ওই কোয়ার্টার ফাইনালটি ভারতই জিতে নেয়। শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ ট্রফিও উঠে ধোনির হাতে। রোববারের ম্যাচটি গ্রুপ পর্বের ম্যাচ হলেও এটা এক অর্থে কোয়ার্টার ফাইনালের মতোই। এই ম্যাচ জিতলেই কেবল সেমির টিকিট পাওয়া যাবে। হারলেই টুর্নামেন্ট থেকেই বিদায়।
নির্বাচকরা বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা ভারতীয় একাদশই মাঠে নামাবে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। মোহালিতে এরইমাঝে একটি ম্যাচ খেলে ফেলেছে স্টিভেন স্মিথরা। ওই ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪ উইকেটে ১৯৩ রান তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া। তাই বলা বাহুল্য, এখানকার কন্ডিশনও তাদের ভালোই চেনা হয়ে গেছে।
টি২০ ক্রিকেটে সবশেষ পাঁচ দেখায় পাঁচবারই জিতেছে ভারত। শেষ তিনটি জয় এখনো টাটকা। অস্ট্রেলিয়া জিতেছিল ২০১২ টি২০ বিশ্বকাপে। যেটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল শ্রীলংকায়। দারুণ ফর্মে রয়েছেন অসি অলরাউন্ডার জেমস ফকনার। তিনি পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম অস্ট্রেলীয় বোলার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে প্রথমবার পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছেন।
ভারত (সম্ভাব্য): রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, হার্দিক পান্ডে, মহেন্দ্র  সিং ধোনি (অধিনায়ক), যুবরাজ সিং, রবিন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্র অশ্বিন, জসপ্রিত বুমরাহ, আশিষ নেহরা।
অস্ট্রেলিয়া (সম্ভাব্য): উসমান খাজা, অ্যারন ফিঞ্চ, ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, শেন ওয়াটসন, জেমস ফকনার, পিটার নেভিল, অ্যাডাম জামপা, জন হেস্টিংস/নাথান কোল্টার নিলে, জশ হ্যাজলউড।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s