westindis waman cricket.jpgটি২০ বিশ্বকাপ ছোঁয়ার আশায় মাঠে নেমেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী ক্রিকেট দল। প্রতিপক্ষ টানা তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। দলটির বিপক্ষে তাদের কোনো জয়ের রেকর্ডও ছিল না। সেই অস্ট্রেলিয়াকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হল ক্যারিবীয় নারীরা।
এবারের টি২০ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পুরুষ দলের পাশাপাশি নারী দলও ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। কলকাতার ইডেন গার্ডেনে গেইলদের আগে মাঠে নেমেছেন স্টাফানি টেইলররা। ব্যাট হাতে তুফান তুলেছেন তারা। তাতে অস্ট্রেলিয়াকে ৮ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেছেন।
রোববার প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪৮ রান করে অস্ট্রেলিয়ার নারীরা। জবাবে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৩ বল হাতে থাকতে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
লক্ষ্যে তাড়া করতে শুরুতে ব্যাট হাতে ক্রিজে আসেন হ্যালেই ম্যাথুস ও স্টাফানি টেইলর। শুরু থেকেই তুফানি ব্যাট করছেন তারা। অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা কোনো বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। তাদের জুটি থেকে আসে ১২০ রান। ১৫.৪ ওভারে ওপেনার ম্যাথুস বিদায় নেন। বীমসের বলে ব্যাকওয়েলের তালুবন্দী হওয়ার আগে ৬৬ রান করে তিনি। ৪৫ বলে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় এই স্কোর করেন তিনি।
ওয়ানডাউনে মাঠে নামা ডটিনকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের দিকে এগিয়ে যান অধিনায়ক স্টাফানি। কিন্তু জয় থেকে মাত্র ৫ রান দূরে থাকতে মাঠ থেকে বিদায় নিতে হয় তাকে। ফ্যারেলের বলে জোনাসেনের হাতে ক্যাট আউট হন তিনি। মাঠ ছাড়ার আগে ৫৭ বলে ৬টি চারে ৫৯ রান করেন।
দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন ডটিন। ১২ বলে ১৮ রান করেন তিনি। তার সঙ্গে ৩ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন ব্রিটনি কুপার।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। দলীয় ১৫ রানের মাথায় অ্যালিসা হেলির উইকেটটি হারিয়ে ফেলে তারা। ব্যক্তিগত ৪ রানে ম্যাথুসের বলে তার হাতেই ক্যাচ তুলে দেন হেলি। এই ধাক্কা সামলে উঠতে অসুবিধা হয়নি অসিদের।
দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দলের স্কোরশিটে ৭৭ রান যোগ করেন অধিনায়ক মেগ ল্যানিং ও এলিসি ভিলানি। দু’জনই পেয়েছেন ফিফটির দেখা। ৩৭ বলে ৯টি চারে সাজানো ৫২ রানের ইনিংস খেলে ডোটিনের শিকারে পরিণত হন ভিলানি।
মজার বিষয়, ল্যানিংয়ের ইনিংসটিও থামে ৫২ রানে। ক্যারিবীয় বোলার আনিসা মোহামেদের এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ার আগে ৪৯ বলে আটটি চারের মারে মূল্যবান ইনিংসটি দলকে উপহার দেন অসি অধিনায়ক। ২৩ বলে দুটি ছক্কায় ২৮ রান করেন এলিসি পেরি।
৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সেরা বোলার ডোটিন। একটি করে উইকেট নেন আনিসা মোহামেদ ও ম্যাথুস।