tmpphpmSDScdচৈত্রের দাবদাহ চলছে দেশজুড়ে। কী দিন, কী রাত—অসহ্য ভাপসা গরম। অস্থির নগর জীবন৷ রোদের প্রখর তাপ থেকে বাঁচতে প্রার্থনা একটু বৃষ্টির৷সারা দেশে গত ছয় দিনে ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বেড়েছে। গতকাল তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি যা ছয় দিন আগে ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
তবে, এখনো কমপক্ষে আরো এক সপ্তাহ এই অবস্থা চলতে থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।দাবদাহ চললেও এখনই বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।
জানা গেছে, আগামী বৃহস্পতিবার বাংলা নববর্ষের দিনটিতেও অব্যাহত থাকবে দহন জ্বালা। বৃষ্টির জন্য চাতক পাখির মতো তাকিয়ে আছে দেশবাসী।
ইতিমধ্যেই তাপমাত্রা ৩৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। মনে করা হচ্ছে, এপ্রিলেই এই তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি পেরিয়ে যেতে পারে৷
মঙ্গলবার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।
এদিকে কুষ্টিয়া অঞ্চলের উপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ এবং রংপুর, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, ঢাকা, টাঙ্গাইল ও ফরিদপুর অঞ্চলসহ রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের বাকি অংশেও তাপপ্রবাহ চলতে পারে।
আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, পশ্চিমাঞ্চল ও তার সংলগ্ন এলাকায় দুর্বল হচ্ছে ঘুর্ণাবর্ত৷  এই মৌসুমের স্বাভাবিক চাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের উপর অবস্থান করছে।
আবহাওয়াবিদ খোরশেদ আলম জানান, নিয়মিত কালবৈশাখী ও বৃষ্টিপাত শুরু না হওয়া পর্যন্ত তাপমাত্রা কমবে না। তিনি বলেন, ‘‘এই সময়ে মৃদু ও মাঝারি তাপপ্রবাহ সাধারণ ঘটনা। এটা প্রতি বছরই ঘটে। তবে, গরম এত তীব্র হয় না। কিন্তু এ বছর তা সহ্যক্ষমতা ছাড়িয়ে গিয়েছে৷’’