ইকুয়েডরে ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৬৪৬


earthquake ekuedor.jpgইকুয়েডরে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৪৬ জনে। দেশটির প্রেসিডেন্ট রাফায়েল কোরেয়া এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরো জানিয়েছেন, এখনো নিখোঁজ রয়েছে ১৩০ জন। ১৬ এপ্রিল রাতে ইকুয়েডরের উপকূলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। সেদিন থেকে থেমে থেমে ছোট বড় আরো কয়েকটি ভূমিকম্প অনুভূত হয় ইকুয়েডরে।
দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ইকুয়েডরে কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ দুযোর্গ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে গত সপ্তাহের ভূমিকম্পকে। ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ ও প্রাণহানি হয়েছে এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে।
ভয়াবহ এ দুযোর্গে ল-ভ- হয়ে যাওয়া ইকুয়েডরে আট দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট কোরেয়া। শনিবার টেলিভিশন ভাষণে কোরেয়া বলেছেন, ‘দিনগুলো মাতৃভূমির জন্য দুঃখের দিন। দেশ সংকটের মধ্যে রয়েছে … এটি জাতীয় দুর্যোগ। কিন্তু আমরা এ থেকে উত্তরণ ঘটাব।’
জরুরিভিত্তিতে ২৭ দেশ থেকে উদ্ধারকর্মী পাঠানো হয়েছে। এ দেশগুলোকে ধন্যবাদ জানান প্রেসিডেন্ট কোরেয়া। ১১৩ জনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এ সংখ্যা উৎসাহব্যাঞ্জক, যা উদ্ধার প্রচেষ্টাকে সার্থক করেছে।
গত সপ্তাহ থেকে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ১২ হাজার লোক চিকিৎসা নিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট কোরেয়া আরো বলেছেন, ভূমিকম্পে নিহত বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, কানাডা, কিউবা ও ডোমিনিকান রিপাবলিকের নাগরিক রয়েছে।
ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় অবকাঠামো পুনর্নির্মাণে ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজন হবে। এরইমধ্যে বিশ্বব্যাংক ১৫০ বিলিয়ন ডলার দিতে চেয়েছে।
তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s