ফাইনালের দৌড়ে রিয়াল বনাম সিটি


madrid-city.jpgউরোপিয়ান ক্লাবের মধ্যে ছোট দলগুলোর পারফরম্যান্স নজর কেড়ে যাচ্ছে। যেখানে ইতোমধ্যেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চ্যাম্পিয়নের মুকুট পড়ে রেকর্ড গড়েছে লিচেস্টার সিটি। অন্যদিকে শক্তিশালী বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। এবার রিয়াল মাদ্রিদের দুর্গ কি ভাঙতে পারবে ম্যানচেস্টার সিটি?
চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলো সিটি। এবার তাদের সামনে আসরটির ফাইনালে ওঠারও হাতছানি থাকছে। এরই ধারাবাহিকতায় সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে রিয়াল ও সিটি।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে বুধবার রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে ম্যানচেস্টার সিটি। ইতিহাস গড়ে এই প্রথম সেমিফাইনালে উঠেছে পেল্লেগ্রিনির শিষ্যরা। আর রিয়ালের সামনে রেকর্ড ১৪ বারের মতো ফাইনালে ওঠার হাতছানি। মাঠে নিজেদের সেরাটা দিয়ে কাঙ্খিত সেই ফাইনালের টিকিট পেতে চায় দু’দলই। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে দু’দলের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে দু’টায়।
ইউরোপের ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার আসর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। যার মুকুট জয় প্রতিটি দলের কাছেই চির আরাধ্য। কাঙ্খিত সেই ফাইনালে ওঠার পথে মাত্র একটি বাধা সেমিফাইনাল। মঞ্চে দুই মেরুর দুই জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি ও রিয়াল মাদ্রিদ।
এক দল সবচেয়ে বেশি দশবার ঝুলিতে পুরেছে চ্যাম্পয়িন্স লিগের শিরোপা। আর মুদ্রার অন্য পিঠে ম্যানচেস্টার সিটি, ইতিহাস গড়ে যারা প্রথমবারের মতো ঠাই করে নিয়েছে শীর্ষ চারে। দুই দেশের দুই জায়ান্টের এ লড়াই নিয়ে রোমাঞ্চ আর শিহরণে মত্ত তাদের সমর্থকরাও।
কে জিতবে রিয়াল মাদ্রিদ না ম্যানচেস্টার সিটি? এ নিয়ে চলছে চুলচেরা হিসেব নিকেশ। প্রথম লেগে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে গোলশূন্য ড্র হওয়ায় এ ম্যাচে জে দল জিতবে তার জন্যই খুলে যাবে ফাইনালের দরজা। তবে ফুটবল বোদ্ধারা এগিয়ে রাখছেন রিয়াল মাদ্রিদকেই। কারণ এ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ঘরের মাঠে একরকম অপ্রতিরোধ্য লোস ব্লাঙ্কোসরা।
লা লিগায়ও দারুণ ছন্দে ফিরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। জিনেদিনে জিদানের যাদুর কাঠিতে পুরো দল এখন এক এক ছাতার নিচে। সবার মাঝে বোঝাপড়ারাটাও দারুণ। শিরোপার রেসেও নিজেদের ধরে রেখেছে মাদ্রিদিস্তানরা। সে ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এখন ১৪ তম বারের মতো ফাইনালে ওঠার প্রতিক্ষায় জিদানের শিষ্যরা।
ম্যাচের আগে রোনালদোর ফেরার খবরে চনমনে ভাব ফিরে এসেছে পুরো দলে। দলের সঙ্গে পুরোদমে অনুশীলন করেছেন সি আর সেভেন। তবে, বেনজেমার খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েই গেছে। তবুও সব অনিশ্চয়তা ঝেরে ফেলে বার্নাব্যুতে সমর্থকদের জয় উপহার দিতে চায় রিয়াল মাদ্রিদ।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে টানা ৬ ম্যাচে অপরাজিত আছে ম্যানচেস্টার সিটি। নিজেদের জয়ের ধারা ধরে রেখে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে নতুন ইতিহাস গড়তে চায় সিটিজেনরা। দলে ইয়া ইয়া তোরেসহ বেশ কজন তারকা ফুটবলারের ইনজুরি সমস্যা থাকলেও, এ ম্যাচে মাঠে নামবেন সবাই।
ইংলিশ লিগের শিরোপার আশা শেষ হয়ে গেছে আগেই। তাই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অন্তত টিকে থাকার আশা পেল্লেগ্রিনির দলের। যদিও পরিসংখ্যান আছে রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষেই। কারণ এখন পর্যন্ত ইংলিশ ক্লাবগুলোর বিপক্ষে শেষ ৯ ম্যাচে হারের স্বাদ পায়নি মাদ্রিদিস্তানরা। ৬ জয়ের সঙ্গে ড্র আছে ৩ টিতে। ২০০৯ সালে শেষ লিভারপুলের কাছে হেরে আসর থেকে ছিটকে পরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। মুখোমুখি শেষ ৫ ম্যাচেও জয় নেই ম্যানচেস্টার সিটির। ২ টিতে জিতেছে জিদানের দল। ২টি ম্যাচ হয়েছে ড্র।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s