elephant dadeশত শত মানুষ এসেছে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নিতে। শেষ বিদায়ে তাকে সাজিয়ে দেওয়া হয়েছে নানা রকম ফুল ও রং দিয়ে। কোনো কমতি ছিল না আচার-অনুষ্ঠানেরও। কিন্তু বিস্ময়ের ব্যাপার হলো এত আয়োজন যার শেষ বিদায়ে, সেটা একটি হাতি। একটি পশুর বিদায়ের এত আয়োজনের এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের আসাম রাজ্যের কামরুপের চক্রপানি গ্রামে।
সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে বিশাল আয়তনের একটি কবরে তাকে কবর দেওয়া হয়েছে ওই গ্রামে।
গ্রামবাসী জানায়, শনিবার খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে ঢুকে পড়েছিল হাতিটি। কিন্তু বন্য হাতির কবল থেকে রক্ষা পেতে গ্রামবাসী বৈদ্যুতিক তার দিয়ে বেড়া (অবৈধভাবে) তৈরি করেছিল। সেই তারের সংস্পর্শে এসে বৈদ্যুতিক শকে হাতিটির মৃত্যু হয়। তবে ওই হাতির মৃত্যুর পর যথাযোগ্য মর্যাদায় শোক প্রকাশ করে গ্রামবাসী। পূজা অর্চনার মধ্য দিয়েই তাকে শেষ বিদায় জানায় গ্রামবাসী।
হাতিটি পথ হারিয়ে লোকালয়ে এসে একটি চালের গুদামে ঢুকে চাল খাওয়ার চেষ্টা করছিল। এ সময় অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন ওই তারের সংস্পর্শে বৈদ্যুতিক শক লাগে।
একজন বন কর্মকর্তা বলেন, বনাঞ্চলে খাদ্য ঘাটতি এবং অবৈধভাবে বন দখলের কারণে বন্য প্রাণীরা খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে ঢুকে পড়ছে। এ সময় বন্য প্রাণীরা খুবই হিংস্র হয়ে ওঠে।

Advertisements