abul mal abdul muhitমন্ত্রণালয়ভিত্তিক বাজেট বরাদ্দসহ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা ও আসন্ন বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের দাবির জবাবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, “আমি নিজেও একজন প্রতিবন্ধী। আমার বয়স হয়েছে।” অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের বাইরে গেলে প্রতিবন্ধীদের জন্য টয়েলেটসহ যেসব সুযোগ-সুবিধা রাখা হয়, সেগুলো আমাকে ব্যবহার করতে হয়। কাজেই আমি নিজেইতো একজন প্রতিবন্ধী!’
বৃহস্পতিবার দুপুরে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের নেতাকর্মীরা অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে অর্থমন্ত্রীর কাছে লিখিত দাবি-দাওয়া পেশ করেন ফোরামের নেতাকর্মীরা। ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রী উল্লিখিত মন্তব্য করেন।
বৃহস্পতিবারে (২৬ মে) সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামসের নেতাদের সঙ্গে অর্থমন্ত্রীর বৈঠকে তাদের দাবি দাওয়া পেশ করা হয়। বৈঠকে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামসের পক্ষে থেকে দাবি তুলে ধরেন সংগঠনের মহাসচিব সেলিনা আক্তার।
বৈঠকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য , সমাজকল্যাণ, মহিলা ও শিশু, স্থানীয় সরকার, ক্রীড়া, গণপূর্ত, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ, আইসিটি, সংস্কৃতি, পরিকল্পনা ও শ্রম কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়গুলোতে প্রতিবন্ধীদের জন্য পৃথক বরাদ্দ রাখার দাবি জানানো হয়।
মন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের দাবিগুলোতে যৌক্তিক। কিন্তু এ মুহূর্তে কিছু করার নেই। উন্নত দেশের মতো আমাদের দেশে প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দিতে সময় লাগবে।’