hilari.jpgএখন থেকে ২২৭ বছর আগে ১৭৮৯ সালে স্বাধীন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হন জর্জ ওয়াশিংটন। তারপর থেকে বারাক ওবামা পর্যন্ত ৪৩ জন ব্যক্তি এ পদে এসেছেন। যাদের সবাই পুরুষ এবং ওবামা বাদে সবাই শ্বেতাঙ্গ। এবার ইতিহাসে নতুন মোড় নিতে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ২২৭ বছরের রাজনৈতিক ইতিহাসে হিলারি ক্লিনটন এক নতুন সূর্য। পুরুষালি রাজনীতির বেড়ি ভেঙে তিনি হচ্ছেন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হচ্ছেন হিলারি ক্লিনটন। প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও ফার্স্ট লেডি হিলারি প্রার্থিতা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ডেলিগেটের সমর্থন পেয়ে গেছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফার্স্ট লেডি হিলারি নিজের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্সকে পরাজিত করে সোমবার এই গৌরব অর্জন করেছেন। ফলে তার এখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনীত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মোকাবেলা করায় আর কোনো বাধা থাকল না।
এর আগে রবিবার অনুষ্ঠেয় প্রাইমারিতে পুয়ের্তো রিকোতে বড় জয় পাওয়ার পরই দলটির পক্ষ থেকে তার মনোনয়ন নিশ্চিত হয়। হিলারি ক্লিনটন মোট ২ হাজার ৩৮৪ ডেলিগেটের সমর্থন পেয়ে দল থেকে নিজের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এরমধ্যে প্লেজড ডেলিগেটের সমর্থন ১ হাজার ৮১২ এবং সুপার ডেলিগেটের সমর্থন রয়েছে ৫৭২। মনোনয়ন পাওয়ার জন্য তার দরকার ছিলো ২ হাজার ৩৮২ ডেলিগেটের সমর্থন। তিনি প্রয়োজনের চেয়ে একটি ডেলিগেটের সমর্থন বেশি পেয়েছেন।
আগামী নভেম্বর মাসে অনুষ্ঠিতব্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সরাসরি লড়াই হবে ট্রাম্প ও হিলারির মধ্যে।
এদিকে ডেমোক্রেটিক দলের অন্য প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্স ১ হাজার ৫৬৬ ডেলিগেটের সমর্থন পেয়েছেন। এর মধ্যে প্লেজড ডেলিগেটের সমথর্ন রয়েছে ১ হাজার ৫২০ এবং সুপার ডেলিগেটের সমর্থন রয়েছে ৪৬।

hilari.jpg

Advertisements