laptop battery.jpgদীর্ঘদিন চলার মতো করেই তৈরি করা হয় ল্যাপটপ কম্পিউটারের ব্যাটারি। তবুও ব্যাটারির কার্যক্ষমতা কমে যাচ্ছে, এমন অভিযোগ শোনা যায় প্রায়ই। পরিবেশগত বাহ্যিক তাপেও দ্রুত গরম হয়ে ব্যাটারির কর্মক্ষমতা অনেকাংশে কমিয়ে দেয়। ব্যাটারির চার্জ ২০ থেকে ৩০ শতাংশ অবশিষ্ট থাকলে তখনই এটিকে চার্জ করে নিতে হয়। শতভাগ চার্জ হয়ে গেলে ল্যাপটপের ব্যাটারি চার্জ নেওয়া বন্ধ করে সরাসরি বিদ্যুৎ থেকে শক্তি নিয়ে চলতে থাকে। কিছু কৌশল অবলম্বন করে চললে ব্যাটারির চার্জ থাকে দীর্ঘক্ষণ।
যা করবেন
প্রথমে ল্যাপটপ শতভাগ চার্জ করে নিন। এরপর কমপক্ষে দুই ঘণ্টা সময় দিয়ে ঠান্ডা করে নিন ল্যাপটপের ব্যাটারি। দুই ঘণ্টা পর ল্যাপটপ চালু করে উইন্ডোজ সাতের ডেস্কটপের ডান পাশে নিচে ব্যাটারির আইকনে মাউসের ডান বোতামে চেপে Power Option চালু করুন। পাওয়ার প্ল্যান থেকে Balanced (recommended) এর Change plan settings-এ ক্লিক করুন। আবার Change Advanced power settings-এ ক্লিক করে সেটি খুলুন। এবার Battery তে ক্লিক করে Critical battery action-এর on battery তে Hibernate নির্বাচন করে দিন। এটি অনেক সময় আগে থেকেও করে দেওয়া থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে নতুন করে আর করার দরকার নেই। Critical battery level-এর on battery এবং Plugged in-এ ৫% নির্ধারণ করে দিন। কম্পিউটার হাইবারনেটে চলে যাওয়ার আগেই অন্য যেকোনো কাজ করে ব্যাটারির চার্জ নিঃশেষ করে নিন। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের বিশেষ সুবিধা হাইবারনেট, যেটি ল্যাপটপ কম্পিউটারে ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয়েছে। কাজ শেষে কম্পিউটার বন্ধ হলে ঘণ্টা খানেক পর আবারও চার্জ করে ব্যবহার করুন। উইন্ডোজ ভিস্তা এবং ৭-এর কিছু ভিজুয়াল ইফেক্ট এবং থিম ব্যাটারির স্থায়িত্ব কমায়। তাই যাঁদের ল্যাপটপে চার্জ কম থাকে তাঁরা Windows 7 Basic Theme থিমটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি ডেস্কটপে মাউসের ডান বোতামে ক্লিক করে Personalize-এ গিয়ে করা যাবে।