cumulus clouds.jpgবহুদিন ধরে চীনে কৃত্রিম মেঘ বানানোর প্রযুক্তির কথা শোনা যাচ্ছিল। এবার খরা মোকাবিলায় সেই কৃত্রিম মেঘ ভারতের কাছে বিক্রি করবে চীন। যাতে করে পানিভরা মেঘে ফাটল ধরে আকাশ ভেঙে বৃষ্টি নেমে আসে। আর সেই আকাশ ভাঙা বৃষ্টিতে ভিজবে ভারতের খরাপ্রবণ এলাকাগুলো। আর এভাবে খরা সমস্যা কিছুটা হলেও কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে মনে করছে দেশটি।
বিলম্বিত বর্ষা ও প্রচণ্ড খরায় হুট করে আকাশ ভাঙা বৃষ্টি নামিয়ে আনতে পানিভরা মেঘ বানানোর যে প্রযুক্তির উদ্ভাবন করেছিলো চীন, তা মহারাষ্ট্রের খরাপ্রবণ রাজ্য মরাঠাওয়াড়ায় বৃষ্টির জন্য কাজে লাগানো হবে।
মরাঠাওয়াড়াতে ওই মেঘ বানানোর প্রযুক্তি সরবরাহ করার জন্য কয়েকদিন আগে মহারাষ্ট্র ঘুরে গিয়েছেন বেইজিং, সাংহাই ও পূর্ব চিনের আনহুই প্রদেশের বিজ্ঞানীরা। তারা মহারাষ্ট্রের আবহাওয়া দপ্তরের কর্মকর্তাদের ওই কৃত্রিম মেঘ বানানোর প্রযুক্তি শেখাবেন বলে জানিয়েছেন।
রকেট ছুঁড়ে হাল্কা মেঘের মধ্যে সিলভার আয়োডাইড লবণ ঢুকিয়ে দিয়ে সেই মেঘকে পানিপূর্ণ করে তোলার প্রযুক্তি বেশ কিছু দিন আগেই আয়ত্ত করেছে চিন। সেই প্রযুক্তির সুবাদে গোটা বিশ্বকে হতবাক করেছিল চীন।
তাদেখে দু’টি মৌসুমে খরাক্রান্ত মরাঠাওয়াড়ায় তড়িঘড়ি বৃষ্টি নামাতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে মহারাষ্ট্র সরকার। সে জন্যই তারা দ্বারস্থ হয় চীনের। যতদিন না পর্যন্ত মহারাষ্ট্রের আবহওয়া অধিদপ্তর কৃত্রিম মেঘ বানানোর কৌশল আয়ত্ত করে না নেয় ততদির পর্যন্ত চীনের কাছ থেকে কৃত্রিম মেঘ কিনবে ভারত।