bel (wels).jpgইউরোর গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আরো একবার হোঁচট খেল ইংল্যান্ড। স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে মূল খেলোয়াড়দের বসিয়ে রাখার মাশুল দিয়েছে রয় হজসনের ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ড ও স্লোভাকিয়ার মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। তাদের হোঁচট খাওয়ার দিনে দারুণ এক জয়ে ‘বি’ গ্রুপের সেরা দল হিসেবে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ ষোলোয় পৌঁছেছে ওয়েলস।
সোমবার রাতে বি গ্রুপের চার দলই মাঠে নেমেছিল। স্লোভাকিয়া ও ইংল্যান্ডের ম্যাচটি ড্র হয়েছে। আর রাশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে গ্যারেথ বেলের ওয়েলস।
গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রাশিয়ার সঙ্গে ড্র করেছিল ইংল্যান্ড। ওয়েলসের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও জয়ের দেখা পেয়েছিল। কিন্তু স্লোভাকিয়ার সঙ্গে ফের ড্র। ফলে তিন ম্যাচে মাত্র ৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের দ্বিতীয় স্থানে থেকে শেষ ষোলোর টিকিট পেয়েছে ১৯৬৬ বিশ্বকাপজয়ীরা।
এদিকে স্লোভাকিয়াকে হারিয়ে ইউরো শুরু করেছিল ওয়েলস। দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত হেরেছিল বেলরা। কিন্তু শেষ ম্যাচে রাশিয়াকে হারিয়েছে বড় ব্যবধানে। তাতে মোট ছয় পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করল যুক্তরাজ্যের দলটি।
এদিন ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণ চালায় ওয়েলস। ৫১ শতাংশ বল দখলে রাখলেও টার্গেটে ১২টি শট নিয়েছে ওয়েলসের খেলোয়াড়রা। অন্যদিকে রাশিয়া মাত্র দুটি শট নিয়েছে।
ম্যাচের প্রথম মিনিটে বেল সুযোগ পেলেও তা ব্যর্থ হয়ে যায়। কিন্তু ১১ মিনিটে দলকে লিড এনে দেন রামসে। জো অ্যালেনের কাছ থেকে পাওয়া বল রুশ গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে জালে জড়িয়ে দেন তিনি।
খেলার ২০ মিনিটেই দলের লিডকে ডাবলে নিয়ে যান টেইলর। একক প্রচেষ্টায় দুর্দান্ত গোল করেন তিনি। প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হওয়ায় ২-০তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ওয়েলস।
দ্বিতীয়ার্ধে নিজের ভাগের গোলটি করেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা গ্যারেথ বেল। ম্যাচে ৬৭ মিনিটে রামসের বাড়িয়ে দেয়া বল লক্ষ্যে পৌঁছে দেন এই তারকা।
তিন ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থেকে গ্রুপ পর্ব শেষ করল ইংল্যান্ড। শীর্ষস্থান নিশ্চিত করা ওয়েলসের পয়েন্ট ৬।
৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে নকআউট পর্বে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলো স্লোভাকিয়া। ছিটকে পড়া রাশিয়ার পয়েন্ট ১।
ইউরোর ছয়টি গ্রুপের সেরা দুইটি করে দল এবং তৃতীয় স্থানের সেরা চারটি দল পরের রাউন্ডে উঠবে।

৫৮ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন বেল
এদিকে ৫৮ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন বেল। গ্রুপপর্বে প্রতিটি ম্যাচেই একটি করে গোল এসেছে তার পা থেকে। আর এরই মধ্যে দেশটির ফুটবল ইতিহাসে ৫৮ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন রিয়াল মাদ্রিদের এই স্ট্রাইকার। বড় কোনো আসরে ওয়েলসের হয়ে বেলই এখন সর্বোচ্চ গোলদাতা। এর আগে ওয়েলস ১৯৫৮ সালে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করে। সেবার দলের হয়ে লোভর আলচার্চ দুটি গোল করেছিলেন। তাই এতোদিন পর্যন্ত তিনিই ছিলেন শীর্ষে। তবে নতুন প্রজন্মের তারকা বেলের কাছে এবার হারাতে হলো তার রেকর্ডটি। এদিকে পর পর দুটি ইউরো আসরের পর একটি কীর্তি গড়লেন বেল। সর্বশেষ ২০০৪ আসরে মিলান ব্যারস ও রুড ফন নিলেস্তরয় প্রথম তিন ম্যাচে গোল করেছিলেন। এবার সেটি করে দেখালেন বেল।