argentina vs usa.jpgগত বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে খেলেও শিরোপা জেতা হয়নি আর্জেন্টিনার। তার আগের বছর বিশ্বকাপ হাতছাড়া হলো। এবার শতবর্ষী কোপার ফাইনালের দরজায়। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের টিকিট নিশ্চিত করতে আগামীকাল বুধবার সকালে মাঠে নামছেন লিওনেল মেসিরা। স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তাদের লড়াই শুরু হবে আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়।
যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থকদের সবচেয়ে বড় ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি। কোপার শতবর্ষী আসরটি নিজ দেশে হওয়ায় এক মেসিকে দেখতেই স্টেডিয়ামে হুমড়ি খেয়ে পড়ে তার ভক্তরা। এমনকি যে ম্যাচে বার্সেলোনা তারকা সাইড বেঞ্চে বসেছিলেন, সে ম্যাচেও পুরো স্টেডিয়াম জুড়ে ছিল ‘মেসি’ ধ্বনি। তবে এবার খোদ সকারুদের (যুক্তরাষ্ট্রের) বিপক্ষেই মাঠে নামছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। সেমিফাইনালের কঠিন লড়াইয়ে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা ও যুক্তরাষ্ট্র। যদিও এ ম্যাচে নিশ্চিত ফেভারিট হিসেবে মাঠে নামবে মেসি-আগুয়েরো-হিগুইনরা। টেক্সাসের রেলিয়েন্ট স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে দু’দল।
এবার কোপা আমেরিকায় দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলছে আর্জেন্টিনা। একমাত্র দল হিসেবে গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচে জিতেছিল। কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত প্রতিটি ম্যাচেই কমপক্ষে দুটি করে গোল করেছে। সেমিফাইনালে উঠতে ভেনেজুয়েলাকে উড়িয়ে দিয়েছিল ৪-১ গোলের ব্যবধানে।
শক্তির বিচারে আর্জেন্টিনার চেয়ে দুর্বল প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র। স্বাগতিকরা প্রথম ম্যাচেই কলম্বিয়ার কাছে হেরেছিল। আর কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত প্রতিপক্ষের জালে মোট সাত বার বল পাঠাতে পেরেছে। অন্যদিকে তিনটি গোল হজম করেছে।
বিপরীতে আর্জেন্টিনা প্রতিপক্ষকে গোলবন্যায় ভাসিয়েছে। গ্রুপ পর্বে করেছিল মোট ১০ গোল। এখন পর্যন্ত তাদের গোলসংখ্যা ১৪। কিন্তু হজম করেছে মাত্র একটি গোল। সেই গোলটি করেছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চিলি।
যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে জয়ের মাধ্যমে দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে বড় কোনো শিরোপা জয়ের আক্ষেপ ঘোচানোর পথ মসৃণ হবে আর্জেন্টিনার। তাই ম্যাচটিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে সতর্ক আর্জেন্টিনার কোচ জেরার্ডো মার্টিনো ও অধিনায়ক লিওনেল মেসি।
অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্র চাইবে ঘরের মাঠে চলমান টুর্নামেন্টের শিরোপা নিজেদের শোকেসে তুলতে। তার জন্য স্বাগতিকদের আটকাতে হবে মেসিকে? দুর্দান্ত ফর্মে থাকা আর্জেন্টিনার অধিনায়ক জ্বলে উঠলে যুক্তরাষ্ট্রের কপালে বড় খারাপই আছে।
তবে স্বাগতিক দলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লিন্সম্যান মেসি আর আর্জেন্টিনাকে নিয়ে ভীত নন। তাকে হয়তো অনুপ্রাণিত করছে ২০০৬ সালের সুখস্মৃতি। তখন জার্মানির কোচ থাকাকালে বিশ্বকাপ থেকে আর্জেন্টিনাকে বিদায় করে দেয়ার কারিগর ছিলেন এই ক্লিন্সম্যানই। এবার কোপা আমেরিকায় ডেম্পসি-ববি উডদের নিয়ে আর্জেন্টিনাকে হতাশ করতে চাইবেন তিনি।
দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে অবশ্য এগিয়ে আর্জেন্টিনা। এ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফুটবলে নয়বার যুক্তরাষ্ট্রে বিপক্ষে লড়াইয়ে ৫ বারই জিতেছে তারা। দুটি ম্যাচে হেরেছে, আর ড্রয়ে নিষ্পত্তি হয়েছে দুটি। ২০১১ সালে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিল আর্জেন্টিনা। এর আগে ২০০৮ সালে দুই দলের মধ্যকার ম্যাচটি শেষ হয়েছে গোলশূন্য ড্রয়ে। কোপা আমেরিকায় দুই দলের শেষ দেখা হয়েছিল ২০০৭ সালে। ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনার কাছে ৪-১ গোলে পরাজিত হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

argentina vs usa.jpg