ইউরোর শেষ ষোলোয় কে কার প্রতিপক্ষ?


Euro 2016

দেখতে দেখতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ হয়ে গেল। স্পেন, জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মতো শক্তিশালী দলগুলোর পাশাপাশি আইসল্যান্ড, উত্তর আয়ারল্যান্ডের মতো সারপ্রাইজ দলগুলো শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয়।

বড় কোনো অঘটন ছাড়াই শেষ হলো ইউরোর গ্রুপপর্বের খেলা! এরই মধ্যে চূড়ান্ত হয়ে গেছে নকআউট পর্বের ১৬টি দল। আগামী ২৫ জুন থেকে শুরু হবে এই পর্বের লড়াই। এখন জানার বিষয়, ইউরোর শেষ ষোলোয় কে কার প্রতিপক্ষ?
ফ্রান্সে চলমান আসরটিতে চমকের নাম আইসল্যান্ড ও গ্যারেথ বেলের ওয়েলস! প্রথমবারের মতো ইউরোতে অংশ নিয়েই শেষ ষোলোর খেলা নিশ্চিত করেছে তারা। আসরের শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা সুইডেন বিদায় নিশ্চিত করেছে।
ছয় গ্রুপ থেকে মোট ১৬টি দল নকআউট পর্বে জায়গা করে নেয়। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ ষোলতে উন্নীত হওয়া দলগুলো হলো যথাক্রমে- ইতালি, ওয়েলস, জার্মানি, ক্রোয়েশিয়া, ইতালি, ফ্রান্স ও হাঙ্গেরি।
অন্যদিকে গ্রুপ রানার্সআপ হিসেবে শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয়া দলগুলো হলো যথাক্রমে- সুইজারল্যান্ড, ইংল্যান্ড, পোল্যান্ড, স্পেন, বেলজিয়াম ও আইসল্যান্ড।
অন্যদিকে ছয় গ্রুপ থেকে সেরা চার তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দল নকআউট পর্বে জায়গা করে নেয়। এরা হলো- স্লোভাকিয়া, পর্তুগাল, উত্তর আয়ারল্যান্ড ও রিপাবলিক আয়ারল্যান্ড।
গ্রুপ পর্বে কোনো দলই তিন ম্যাচের তিনটিতে জয় পায়নি। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো- রোনালদোর পর্তুগাল একটি ম্যাচ না জিতেও শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয়। তিন ম্যাচের তিনটিতেই ড্র করে পর্তুগাল। গোল ব্যবধানের কারণে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে সেরা তৃতীয় দলের চারটির একটি হিসেবে নকআউট পর্বে জায়গা করে নেয় ২০০৪ সালের ফাইনালিস্টিরা।
ফ্রান্স, জার্মানি, পোল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া সমান সাত পয়েন্ট নিয়ে নিজ নিজ গ্রুপ থেকে শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয়। চারটি দলই ২ জয় ও এক ড্র নিয়ে অপরাজিত দল হিসেবে নকআউটে উন্নীত হয়।
গ্রুপ পর্বে কোনো হারের মুখ দেখেনি ইংল্যান্ড, আইসল্যান্ড, হাঙ্গেরি ও পর্তুগালও। ইংল্যান্ড, আইসল্যান্ড ও হাঙ্গেরি সমান এক জয় ও দুই ড্রয়ে ৫ পয়েন্ট নিয়ে শেষ ষোলতে উন্নীত হয়। অন্যদিকে পর্তুগাল তো তিন ড্র নিয়েই নকআউটে পা রাখে।
অন্যদিকে স্লোভাকিয়া ও রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড এক জয় ও এক ড্রয়ে চার পয়েন্ট নিয়ে সেরা তৃতীয় দল হিসেবে শেষ ষোলতে জায়গা করে নেয়। পক্ষান্তরে উত্তর আয়ারল্যান্ড এক জয় ও দুই হারে তিন পয়েন্ট নিয়ে সেরা তৃতীয় দল হিসেবে নকআউটে জায়গা করে নেয়।
উয়েফার নিয়ম অনুযায়ী, ছয় গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ মিলে ১২টি দল নকআউট পর্বে তথা শেষ ষোলতে উন্নীত হবে। সেইসঙ্গে সেরা চার তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলও নকআউটে পা রাখবে। নিয়ম অনুযায়ী, পয়েন্ট, গোল ব্যবধান, গোল সংখ্যা এবং ফেয়ার প্লে- এসব বিষয় মাথায় রেখেই সেরা তৃতীয় দল নির্বাচন করা হয়।
এবার একনজরে দেখে নেওয়া যাক ইউরোর শেষ ষোলোয় কে কার প্রতিপক্ষ:
তারিখ              সময়                      দল
২৫ জুন…….সন্ধ্যা ৭টা……….সুইজারল্যান্ড-পোল্যান্ড
২৫ জুন…….রাত ১০টা……….ওয়েলস-উত্তর আয়ারল্যান্ড
২৫ জুন…….রাত ১টা…………ক্রোয়েশিয়া-পর্তুগাল
২৬ জুন…….সন্ধ্যা ৭টা……….ফ্রান্স-রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড
২৬ জুন…….রাত ১০টা……….জার্মানি-স্লোভাকিয়া
২৬ জুন…….রাত ১টা…………হাঙ্গেরি-বেলজিয়াম
২৭ জুন……..রাত ১০টা……….ইতালি-স্পেন
২৭ জুন……..রাত ১টা…………ইংল্যান্ড-আইসল্যান্ড

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s