ঘুমের শর্তে বাড়তি বোনাস!


ghumযুক্তরাষ্ট্রের বীমা জায়ান্ট এইটনা মনে করে কর্মচারীরা আগের রাতে কেমন ঘুমোচ্ছে, তার ওপর তাদের পারফরমেন্স অনেকটাই নির্ভর করে। সে কারণে, ভালো ঘুমের শর্তে বাড়তি বোনাস দিচ্ছে এই কোম্পানি। প্রতি রাতে অন্তত সাত ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্ন ঘুমোনোর শর্তে বছরে একজন কর্মীকে ৩০০ ডলার পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে।
প্রতিশ্রুতি-মত আদৌ তারা ঘুমোচ্ছে কিনা, তার প্রমাণে কর্মচারীরা ঘুমের সময় কব্জির সাথে একটি মনিটর বেঁধে রাখে। ঐ মনিটরের সাথে সংযোগ থাকে অফিস কম্পিউটারের।
অনেক সময় কর্মচারীদের মুখের কথাও গ্রহণ করে কোম্পানি।
কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট কে মুনি বলেন, “এ নিয়ে আমরা চিন্তিত নই, আমরা কর্মচারীদের বিশ্বাস করি।”
২০০৯ সালে এইটনা ঘুমের এই স্কিম চালু করে। ২০০৪ সাল নাগাদ পঁচিশ হাজার কর্মচারীর দশ হাজারই এতে যোগ দেয়। গত বছর অর্থাৎ ২০১৫ সালেই যোগ দিয়েছেন ১২০০ কর্মচারী।
শুধু ঘুম নয়, শরীরচর্চা করলেও কর্মচারীদের বাড়তি পয়সা দেয়া হয়।
বেশ কিছু সাম্প্রতিক গবেষণায় বলছে, আগের রাতে ঘুমের ওপর পরের দিনের কাজের পারফরমেন্স অনেকটাই নির্ভর করে।
২০১১ সালে আমেরিকান অ্যাকাডেমি অব স্লিপ মেডিসিনের এক গবেষণায় বলা হয় – যুক্তরাষ্ট্রে ভালো ঘুমের অভাবে বছরে কর্মচারী প্রতি গড়ে ১১.৩ কর্মদিন নষ্ট হয়। টাকার হিসাবে এই ক্ষতি ২২৮০ ডলার। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতির মোট ক্ষতি হয় বছরে ৬৩০০ কোটি ডলারেরও বেশি।
এসব বিবেচনা থেকেই এই বীমা কোম্পানি অভিনব এই স্কিম নিয়েছে এবং অব্যাহত রেখেছে।

Advertisements
This entry was posted in International (আন্তর্জাতিক). Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s