play-3rd premik.jpgযেন সিনেমার চিত্রনাট্য! পরিচয় হয়েছিল অনেক আগে। মাঝখানে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। অনেক বছর পর হঠাৎ দেখা এলিভেটরে। কুশল বিনিময়, কথাবার্তা থেকে একটু একটু করে ভালো লেগে যাওয়া। তারপর মন দেওয়া-নেওয়া। ছয় বছরের সম্পর্কটাকে এখন আনুষ্ঠানিক পরিণতি দিতে যাচ্ছেন পেলে। প্রেমিকা মার্সিয়া সিবেলে আওকিকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন ফুটবলসম্রাট।
বয়সের হিসেবে দুজনের দুস্তর ব্যবধান। পেলের বয়স এখন ৭৫, আওকি তাঁর চেয়ে ৩৩ বছরের ছোট। আশির দশকে পরিচয় হয়েছিল দুজনের, ২০১০ সালে এসে আবার দেখা। এর পরেই প্রেমের শুরু। ২০১২ সালে পেলে প্রকাশ্যে বান্ধবী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন আওকিকে। এরপর পেলে বেশ কয়েকবার গুরুতর অসুস্থ হয়ে ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে, আওকি সব সময় তাঁর পাশেই ছিলেন। পেলে এখন অনেকটাই সেরে উঠেছেন, শুভকাজে তাই আর দেরি করতে চান না। সাও পাওলোর এক পত্রিকাকে জানিয়েছেন, আওকির মধ্যে তিনি শাশ্বত ভালোবাসার দেখা পেয়েছেন।
শনিবার রাতেই তৃতীয়বারের জন্য বিয়ে করছেন ৭৫ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তী। এবারের পাত্রীর নাম মার্সিয়া সিবেলে আওকি। পেলের চেয়ে ২৫ বছরের ছোট। ৬ বছর প্রেম করার পর ৫০ বছরের এই  জাপানি রমনীকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিচ্ছেন পেলে।
ব্রাজিলের বিখ্যাত সাও পাওলো বন্দরের গুয়ারুজাতে বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন পেলের আত্মীয় পরিজনসহ ভক্তবৃন্দ। জমকালো এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তৃতীয়বারের মতো জীবনসঙ্গী হিসেবে মার্সিয়াকে বরণ করে নেবেন পেলে।
এটা হবে পেলের তৃতীয় বিয়ে। পেলের প্রথম স্ত্রীর নাম রোজিমেরি ছোলবি। ১৯৬৬ ঘর বেঁধে ছোলবির সঙ্গে ছিলেন ১৯৮২ সাল পর্যন্ত। এই পক্ষে তিন সন্তান রয়েছে পেলের। ১৯৯৪ সালে ফুটবলের রাজার ঘরে দ্বিতীয় স্ত্রী হয়ে আসেন আসিরিয়া লেমোস। এই জুটি টিকে থাকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত। এই পক্ষে পেলের দুটি সন্তান রয়েছে।

Advertisements