lava.jpgএকেই বোধহয় বলে অগি্নস্নান। সম্প্রতি হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জে কিলাউই আগ্নেয়গিরি থেকে পানির ওপর গলে পড়া জ্বলন্ত লাভার কাছে সার্ফিং বোর্ডে করে স্নান সেরে এসেছেন মার্কিন তরুণী অ্যালিসন টিল। তার দাবি, তিনিই বিশ্বের প্রথম নারী যিনি জ্বলন্ত লাভার খুব কাছ থেকে সার্ফিং সেরে এলেন।
সম্প্রতি কিলাউই আগ্নেয়গিরির পানির ওপর গলে পড়া লাভার খুব কাছ থেকে টিলের বেশকিছু ছবি তুলেছেন আন্ডারওয়াটার ফটোগ্রাফার পেরিন জেমস, যা এরই মধ্যে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে।
জানা গেছে, রোমাঞ্চের নেশা অনেক ছোটবেলা থেকেই রয়েছে টিলের। ভয়ঙ্কর হাঙরের সঙ্গেও সেলফি তোলার মতো অ্যাডভেঞ্চার করেছেন তিনি। এ জন্য বন্ধুদের কাছে তিনি পরিচিত নারী ইন্ডিয়ানা জোন্স নামে।
নিজের ফেসবুক পেজে নিজের সাম্প্রতিক সেই রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিতে গিয়ে টিল বলেন, ‘বয়োজ্যেষ্ঠদের প্রার্থনা, সহযোগিতা ও পথপ্রদর্শনের সুবাদে সমুদ্রে পড়া গণগণে লাভার স্রোতের কয়েক ফুট দূরত্বে আমি সার্ফিং করে এসেছি। এ অভিজ্ঞতা দারুণ উত্তেজনাপূর্ণ। সেই আর্দ্রতা, উত্তাপ, শোঁ শোঁ শব্দ সবকিছু দেখে প্রকৃতভাবেই অনুভব করছিলাম যে, আমরা এমন একটা গ্রহে বাস করি, যেটি সত্যিই জীবন্ত। যদিও এ অভিজ্ঞতার সাক্ষী হতে কাউকে অনুপ্রাণিত করেননি টিল। তিনি বলেছেন, ‘পানিটা ফুটছিল। ঘন ধোঁয়া ফেনার মতো লাগছিল। আর সমুদ্রের অবস্থা ঠিক ভরসা করার মতো ছিল না।’ সূত্র :এনডিটিভির।