ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ হন্ডুরাস, জার্মানির নাইজেরিয়া


naymer.JPGঅলিম্পিকের অধরা স্বর্ণ পেতে মরিয়া ব্রাজিল নিজেদের ফিরে পেয়েছে। কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতে সেমি-ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করলো নেইমার বাহিনী। সাও পাওলোতে বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় শেষ আটের লড়াইয়ে নামে স্বাগতিক ব্রাজিল। পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের হয়ে গোল দুটি করেন নিয়মিত দলপতি নেইমার এবং লুয়ান। রিও অলিম্পিকে আজ সকালে কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে গেছে সেলেসাওরা।
ব্রাজিলের হয়ে একটি করে গোল করেছেন নেইমার ও লুয়ান। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে হন্ডুরাসের বিপক্ষে খেলবেন নেইমার, লুয়ান, গ্যাব্রিয়েলরা। সাও পাওলোর করিন্থিয়ান্স অ্যারেনার বাংলাদেশ সময় আজ সকাল ৭টায় শুরু হওয়া ম্যাচের দ্বাদশ মিনিটেই ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন নেইমার।
২৫ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে গোলটি করেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। সঙ্গে সঙ্গে উল্লাসে ফেটে পড়ে করিন্থিয়ান্স অ্যারেনার ৪১ হাজার দর্শক। আসরে এটাই নেইমারের প্রথম গোল। প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি। বিরতির পর শুরুতেই লিড দ্বিগুণ হতে পারতো স্বাগতিকদের। কিন্তু রদ্রিগো কায়োর হেড গোললাইন থেকে ফিরিয়ে দেন কলম্বিয়ান গোলরক্ষক বোনিলা।
ব্রাজিলীয়দের মতোই জার্মানদের প্রতীক্ষার কাল কি তবে শেষ হচ্ছে? ১৯৭৬ সালের মন্ট্রিল অলিম্পিকের ফুটবলে সোনা জিতেছিল সাবেক পূর্ব জার্মানি। এর আগে ও পরে অলিম্পিক ফুটবলে কখনোই সোনার মুখ দেখেনি জার্মানরা। ১৯৬৪ সালে টোকিও আর ১৯৮৮ সালে সিউল অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। ফুটবলে চারবারের বিশ্বজয়ী জার্মানি কি এবার পারবে একীভূত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো অলিম্পিক ফুটবলের সোনা ঘরে তুলতে? এই প্রশ্নের উত্তর জানতে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হলেও জার্মান অলিম্পিক ফুটবল দল কিন্তু সোনার অনেকটা কাছাকাছিই পৌঁছে গেছে। কোয়ার্টার ফাইনালে পর্তুগালকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে জার্মানরা চলে গেছে শেষ চারের লড়াইয়ে।
ব্রাসিলিয়ায় অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে শুরু থেকেই প্রাধান্য ছিল জার্মানির। তবে গ্রুপ পর্বে আর্জেন্টিনাকে হারানো পর্তুগাল জার্মানিকে ঠেকিয়ে রেখেছিল প্রথমার্ধের শেষ দিক পর্যন্ত। বিরতির ঠিক আগ দিয়েই সার্জ জিনাব্রির কোনাকুনি শটে এগিয়ে যায় জার্মানি। ৫৭ মিনিটে দারুণ এক হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ম্যাথিয়াস জিন্টার। ৭৫ মিনিটে স্কোর লাইন ৩-০ করেন ডেভি সালকে। ফিলিপ ম্যাক্সের চতুর্থ গোলটি ছিল চমৎকার। একটি সংঘবদ্ধ আক্রমণ থেকে ম্যাক্সের তুলির শেষ আঁচড়টা ছিল দেখার মতোই।
এদিকে রিও অলিম্পিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ডেনমার্ককে ২-০ গোলে হারিয়ে শেষ চারে পৌঁছেছে ১৯৯৬ সালে আটলান্টা অলিম্পিক ফুটবলে সোনাজয়ী নাইজেরিয়া। খেলার দুই অর্ধে দুটো করে গোল করেন জন ওবি মিকেল ও আমিনু উমার।
অপর কোয়ার্টার ফাইনালে নিজেদের দুর্ভাগা ভাবতেই পারে দক্ষিণ কোরিয়া। হন্ডুরাসের বিপক্ষে প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেও গোল করতে না পারার খেসারত দিতে হলো তাদের। হন্ডুরাসের পোস্টে ১৬টি শট নিয়েও গোল করতে পারেনি লন্ডন অলিম্পিকের ব্রোঞ্জধারীরা। উল্টো ৫৯ মিনিটে খেলার ধারার বিপরীতে গোল খেয়ে বসে তারা। হন্ডুরাসের রোমেল কুইওটো দ্রুতগতিতে কোরিয়ান সীমানায় পৌঁছে আলবার্ত এলিসকে যে পাসটি বাড়ান, তা ঠান্ডা মাথায় কাজে লাগান তিনি। বাকি সময়টাতেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরিই কোরিয়ার হাতে থাকলেও গোল শোধ করতে পারেনি তারা।
আগামী বুধবার অনুষ্ঠেয় সেমিফাইনালে রিও ডি জেনিরোতে মুখোমুখি হবে ব্রাজিল ও হন্ডুরাস। সাও পাওলোতে জার্মানির প্রতিপক্ষ নাইজেরিয়া। সূত্র: রয়টার্স।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s