Scientists+develop+dissolving+battery.jpgস্ববিনাসী ব্যাটারি তৈরিতে সক্ষম হয়েছেন বিজ্ঞানীরা। উত্তাপ বা তরলে উন্মুক্ত করা হলে এটির নিজেই দ্রবীভূত হওয়ার ক্ষমতা রয়েছে। বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২.৫ ভোল্ট ক্ষমতাসম্পন্ন এই ব্যাটারি একটি ডেস্কটপ ক্যালকুলেটর ১৫ মিনিট চালাতে সক্ষম। এ ছাড়াও এটি সেনাবাহিনীর গোপনীয়তা রক্ষা এবং পরিবেশ পর্যবেক্ষণ ডিভাইস হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে।
লোয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অধ্যাপক রেজা মোনটাজামি বলেছেন, এটি প্রথম বাস্তব অস্থায়ী ব্যাটারি।
এতে লিথিয়াম থাকায় ব্যাটারিটি মানবদেহে ব্যবহারযোগ্য নয়। তাই এটি কিভাবে কোনো রকম ক্ষতি ছাড়াই দ্রবীভূত করা এবং অপসারণের সময় ব্যাথা প্রতিরোধ করা যায় সে বিষয়ে গবেষকেরা বেশ কয়েক বছর ধরে মাথা ঘামাচ্ছিলেন।
অধ্যাপক মোনটাজামি একদল বিজ্ঞানীর সহযোগিতায় সম্প্রতি লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি আবিষ্কার করেছেন যা জার্নাল অফ পলিমার সাইন্স, পার্ট বি-পলিমার ফিজিক্সে প্রকাশিত হয়েছে।
এটির দৈর্ঘ্য ৫ মিলিমিটার, ১ মিলিমিটার পুরু এবং ৬ মিলিমিটার প্রস্থ বিশিষ্ট। সাধারণ ব্যাটারির মতই এর উপকরণ, গঠন এবং ইলেক্ট্রোকেমিক্যাল রিঅ্যাকশন।
এটিতে একটি অ্যানোড, একটি ক্যাথোড এবং অ্যালকোহলভিত্তিক পলিমার পলিভিনাইলের দুটি স্তরের মাঝে একটি ইলেক্ট্রোলাইট সেপারেটর রয়েছে। একে পানিতে ফেলা হলে ব্যাটারিটির পলিমার কেসিং স্ফীত হয় এবং ইলেক্ট্রোডগুলো আলাদা হয়ে যায় এবং এর ফলে এটি দ্রবীভূত হয়ে যায়। তবে এতে কিছু ন্যানোপার্টিক্যাল থাকে যা দ্রবীভূত হয়না। এ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে প্রায় আধঘণ্টা সময় নেয়।
গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, “ফেলে দেওয়া ইলেকট্রনিক্সের ফলে উৎপন্ন বর্জ্য পদার্থ হ্রাসে এরকম দ্রবীভূত ব্যাটারি সাহায্য করতে পারে।”
ইউনিভার্সিটি অফ ইলিনয়ের বিশেষজ্ঞরা পানিতে দ্রবীভূত হয় এমন সার্কিট বোর্ড তৈরির লক্ষ্যে গবেষণা করছেন।

Advertisements