shakib-mushfiqবেসিন রিজার্ভের সবুজ মখমলের বুকে দিনজুড়ে লাল কুকাবুরার ছুটোছুটি। বারবার সীমানা ছোঁয়ার বড্ড আকর্ষণ! ২২ গজে রচনা হলো নতুন ইতিহাস। রেকর্ড বইয়ের পাতা ওলটপালট। সাকিব আল হাসানের ব্যাটে অপূর্ব সুরের মূর্ছনা। মুশফিকুর রহিমের সঙ্গত করায় বারবার সেটি পেল নতুন মাত্রা। বাংলাদেশ ক্রিকেটের স্বপ্নময় এক দিন।
এই মাঠে আগে চার ইনিংস খেলে বাংলাদেশ মোট রান ছিল ৫২৩। শুক্রবার দিন শেষে ৭ উইকেটে ৫৪২, ইনিংস শেষ হয়নি এখনও। ওয়েলিংটন টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষের স্কোরকার্ড যেন মায়াবী হাতছানি। তাকিয়ে থাকতেই ইচ্ছে করে, ডুবে যেতে মন চায়, ভালো লাগার নেশা ধরিয়ে দেয়।
সাকিব-মুশফিকের ৩৫৯ রানের রেকর্ড জুটি। একদিনে ৩৮৮ রান। বিদেশের মাটিতে এমন দিন আর কবে পেয়েছে বাংলাদেশ!
এদিন রেকর্ড জুটি গড়েছেন সাকিব (২১৭) ও মুশফিকুর রহিম (১৫৯)। তাদের জুটি থেকে আসে ৩৫৯ রান। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এর আগে সর্বোচ্চ ১৬১ রানের জুটির রেকর্ড ছিল বাংলাদেশের। ২০০৮ সালে ডানেডিনে ওপেনিং জুটটিতে এই রান তুলেছিলেন তামিম ইকবাল ও জুনায়েদ সিদ্দিকী। ওয়েলিংটনে টেস্টের দ্বিতীয় দিনে সেটাই ছাপিয়ে গেলেন মুশফিক-সাকিব। সব মিলিয়ে টেস্টে যেকোনো উইকেট জুটিতে বাংলাদেশেরই চতুর্থ সর্বোচ্চ রানের জুটি।
কিউইদের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টেস্টে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেছেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহ এনে দিয়ে ফিরেছেন সাকিব। নিল ওয়াগনারের বলে ব্যাটের কানায় লেগে বোল্ড হন বাঁহাতি। দলীয় স্কোর তখন ৫৩৬/৬।
২৭৬ বলে ২১৭ রান করতে ৩১টি চার মেরেছেন সাকিব। এই ইনিংসেই টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের রেকর্ড। দেশ সেরা এই অলরাউন্ডারের আউটের পর ছুটে এসে তার সঙ্গে হাত মেলান নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।
এর আগে ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে বাউন্ডারি মেরে সাকিব নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বিশতক পূর্ণ করেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার সাকিব এ অনন্য রেকর্ড গড়েন। সাকিব ১৯৯ রানে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের ওভারে চতুর্থ বলে বাউন্ডারি মেরে স্পর্শ করেন ডবল সেঞ্চুরি।
এটি সাকিবের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। তার আগের সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ১৪৪ রান। এর আগে বাংলাদেশের আর দুই ব্যাটসম্যানের এ কৃতিত্ব রয়েছে। তারা হলেন তামিম ইকবাল এবং মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে দ্বিশতক হাঁকিয়েছেন সাকিব।
এদিন সাকিব দ্বিশতক পেলেও মুশফিক দেড় শ’ রানেই ফিরে গিয়েছেন সাজঘরে। মুশফিক ২৩টি চার ও ১টি ছয়ে ২৬০ বলে ১৫৯ রান করে ফিরেছেন সাজঘরে।
এর আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের সকালে ৩ উইকেটে ১৫৪ রানে শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দুই অপরাজিতের একজন মুমিনুল (৬৪) আগের দিনের সংগ্রহের সঙ্গে কোনো রান যোগ না করেই সাজঘরে ফেরেন। টিম সাউদির বলে বিজে ওয়াটলিংকে ক্যাচ দেন তিনি।
কিউইদের হয়ে নিল ওয়াগনার ৩টি এবং ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদি দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ১৩৬ ওভারে ৫৪২/৭ (তামিম ৫৬, ইমরুল ১, মুমিনুল ৬৪, মাহমুদউল্লাহ ২৬, সাকিব ২১৭, মুশফিক ১৫৯, সাব্বির ১০*, মিরাজ ০; বোল্ট ২/১২১, সাউদি ২/১৪৪, ডি গ্র্যান্ডহোম ০/৬৫, ওয়াগনার ৩/১২৪ স্যান্টনার ০/৬০, উইলিয়ামসন ০/২০)।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s