সবজি দীর্ঘদিন সংরক্ষণ রাখার কিছু টিপস


vegitable.jpegসবজি দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে গিয়ে অনেকেই হতাশ হন। কারণ কয়েকদিন রাখতে না রাখতেই তা নষ্ট হয়ে যায়। তবে কিছু উপায় অবলম্বন করতে পারলে তা সহজেই সংরক্ষণ করা সম্ভব। এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কিছু উপায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ব্রাইট সাইড।
১. সংরক্ষণের আগে ধোয়া নয়
অনেকেই সবজি ফ্রিজে বা অন্য কোথাও সংরক্ষণের আগে তা ধুয়ে নেন। যদিও এতে সবজির আর্দ্রতা বেড়ে যায়। এছাড়া তাদের প্রাকৃতিক সুরক্ষা ব্যবস্থাও নষ্ট হয়। তবে এগুলো যদি ময়লা হয় তাহলে ভালোভাবে কাপড় দিয়ে মুছে নিতে পারেন।
২. শুষ্ক আবহাওয়ায় রাখুন
শুষ্ক আবহাওয়ায় ফলমূল ও সবজি ভালো থাকে। এ কারণে শুষ্ক আবহাওয়াতেই এগুলো সংরক্ষণ করুন।
প্রয়োজনে পাত্রের ভেতর পেপার টাওয়েল রেখে তা ভালোভাবে প্যাক করে সংরক্ষণ করুন।
৩. কিছু সবজি ফ্রিজে নয়
সব সবজি যে ফ্রিজে ভালো থাকে এমন কোনো কথা নেই। প্রয়োজনে ক্যাপসিক্যাম, শশা ও টমেটো ফ্রিজের বাইরেই রাখুন।
৪. কলা মুড়িয়ে রাখুন
ফ্রিজে রাখলে কলার রং পাল্টে যায় তাই তা সাধারণ তাপমাত্রাতেই রাখুন। এক্ষেত্রে এগুলো যেন দ্রুত নষ্ট না হয়ে যায় এজন্য প্লাস্টিকে মুড়িয়ে রাখতে পারেন।
৫. ছাল ছাড়িয়ে পানিতে রাখুন
গাজর ও এ ধরনের সবজির ছাল ছাড়ানোর পর পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। এতে এগুলো দীর্ঘদিন ভালো থাকবে।
৬. ফ্রিজের সবচেয়ে উষ্ণ স্থানে সবজি
ফ্রিজের যে স্থানটি সবচেয়ে কম ঠাণ্ডা সেখানেই রাখুন সবজি। এতে এগুলো দীর্ঘদিন ভালো থাকবে। এক্ষেত্রে ভেজিটেবল বক্সই সবচেয়ে ভালো।
৭. একসঙ্গে সবকিছু নয়
সব ধরনের সবজি ও ফলমূল একত্রে সংরক্ষণ করবেন না। এতে এগুলোর একটির সংস্পর্শে অন্যটি নষ্ট হতে পারে। এক্ষেত্রে একটি গ্রুপ হলো কলা, এপ্রিকট, বাঙ্গি, নাশপাতি, বরই, আম, এবং টমেটো। অন্য গ্রুপটি হলো আপেল, বেগুন, তরমুজ, আলু, কুমড়ো, গাজর, এবং ব্রোকলি। উভয় গ্রুপের জিনিস একত্রে মেশানো যাবে না।
৮. পেঁয়াজ ও আলু আলাদা
আপনি যদি আলু ও পেঁয়াজ একত্রে সংরক্ষণ করেন তাহলে ভুল করবেন। কারণ এতে এগুলো দ্রুত নষ্ট হয়ে যাবে।
৯. রসুন ও পেঁয়াজ অন্ধকারে রাখুন
রসুন ও পেঁয়াজ আলোতে রাখা উচিত নয়। এগুলো অন্ধকার স্থানে রাখাই সবচেয়ে ভালো।
১০. সূর্যালোকে আলু নষ্ট
আলু কখনোই এমন স্থানে রাখা উচিত নয় যেখানে সরাসরি সূর্যালোক পড়ে। এতে এগুলো তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাবে।
১১. আপেলের সঙ্গে আলু
আপেলের সঙ্গে আলু সংরক্ষণ করা বেশ সুবিধাজনক। এতে উভয় জিনিসই ভালো থাকে। তবে কিছুদিন পর পর নজর রাখতে হবে যেন তার কোনোটি নষ্ট হওয়ার উপক্রম হলে দ্রুত সরিয়ে ফেলা যায়।
১২. বায়ুপ্রবাহ
বাড়ির স্বাভাবিক তাপমাত্রায় সবজি সংরক্ষণ করতে হলে সেখানে যেন পর্যাপ্ত বায়ু চলাচল করে এ বিষয়টি নিশ্চিত করুন। বদ্ধ আবহাওয়ায় এগুলো তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়।
১৩. টমেটো সংরক্ষণে
টমেটো সংরক্ষণ করতে হবে ডিমের মতো করে সাজিয়ে। এর ডাঁটাগুলো ওপরের দিকে করে একটি ট্রেতে সাজিয়ে রাখুন।
১৪. পলিথিন ব্যাগে আঙুর
আঙুর সংরক্ষণের জন্য পলিথিন ব্যাগ খুবই উপযোগী। এটি ছোট ছোট গুচ্ছে ভাগ করে পলিথিন ব্যাগে ভরে ফ্রিজে রাখুন।
–ব্রাইট সাইড অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s