syria_1রীতিমতো অবিশ্বাস্য! ছোট্ট মেয়েটির পুরো দেহটাই চাপা পড়েছে ইট-পাথর-বালুর নিচে। সেই ধ্বংসস্তুপের নিচ থেকে শেষ পর্যন্ত জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে সিরিয়ার ওই শিশুটিকে। সিরিয়ার বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগের প্রকাশ করা ছবির বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য সান জানিয়েছে, গত রোববার রাজধানী দামেস্কের পাশের এলাকা তিশরিনে বোমা হামলা চালিয়েছিলে সিরিয়ার বিমান বাহিনী। হামলায় শহরের বেশ কয়েকটি বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়। উদ্ধারকারী দল সেখানে যাওয়ার পর আয়া নামে ওই শিশুটির মা তাদেরকে জানান, তিনি তার সন্তানকে খুঁজে পাচ্ছেন না। এ সময় তিনি তাদেরকে বলছিলেন, ‘তাকে আমার জন্য খুঁজে বের করুন! ওর নাম আয়া!’
স্বেচ্ছাসেবকরা দ্রুত পাশের বাড়ির ধ্বংসস্তুপে খোঁজ শুরু করেন। ইট-বালু-পাথর সরাতেই তারা আয়ার দেহ দেখতে পান। এসময় আয়ার মুখ ভর্তি ছিল বালি। এরপরেও ওই ধ্বংস্তুপের নিচে বেঁচে ছিল সে। উদ্ধারকারীরা দ্রুত তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় বিস্মিত উদ্ধারকারীরা বারবার ‘আল্লাহ মহান, আল্লাহ মহান’ বলে চিৎকার করছিলেন।
এদিকে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, জেনেভায় বিরোধীদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা শুরুর আগেই সোমবার সিরিয়া সরকার দামেস্কের আশেপাশে বোমা হামলা চালাতে শুরু করেছে। এই হামলায় দামেস্কের দক্ষিণে বারজেহ এলাকায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে সাতে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে এক নারী ও এক শিশু রয়েছে।

Advertisements