spider (eat)মাকড়সা বছরে কি পরিমাণ খাবার গ্রহণ করে, তা জানলে নিশ্চিত পেটুক বলবেন। বিশ্বে সমগ্র মাকড়সার বছরে খাবারের পরিমাণ ৪০০ থেকে ৮০০ মিলিয়ন টন! মানুষরা বছরে এই পরিমাণ (৪০০ মিলিয়ন টন) মাছ এবং মাংস খেয়ে থাকে।
দ্য সায়েন্স অব নেচার জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এই চমকপ্রদ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। গবেষকরা পূর্ববর্তী ৬৫ গবেষণার তথ্য হিসাব করে দেখেছেন যে, পৃথিবীতে প্রায় ২৫ মিলিয়ন টন মাকড়সার অস্তিত্ব রয়েছে।
বিশ্বের এই প্রজাতিকুলের বেঁচে থাকার জন্য কি পরিমাণ খাবার গ্রহণের প্রয়োজন হয়? সুইজারল্যান্ডের ব্যাসেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন, বৈশ্বিক মাকড়সা সম্প্রদায় প্রতিবছরে ৪০০ থেকে ৮০০ মিলিয়ন টন পোকামাকড় খেয়ে থাকে।
এটা থেকে বোঝা যায় যে, রোগবাহক বিভিন্ন কিটপতঙ্গ দমনে প্রকৃতিতে মাকড়সার কত বড় অবদান রয়েছে, বিশেষত বনে-জঙ্গলে যেখানে তাদের বেশির ভাগের বসবাস।
গবেষকরা বলেন, ‘আমরা আশা করি এ তথ্য গণসচেতনতা বাড়াবে এবং মানুষ মাকড়সা নিধনে নিবৃত হবে। ফলে মাকড়সার গুরুত্বপূর্ণ বৈশ্বিক ভূমিকার মাত্রা আরো বৃদ্ধি পাবে।’
মাকড়সার এই ক্ষুধা তিমিকে ছাড়িয়ে গেছে, তিমি বছরে ২৮০ থেকে ৫০০ মিলিয়ন টন খাবার শিকার করে।
তাই নিঃসন্দেহে বলা যায়, প্রকৃতির পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে মাকড়সা অপরিহার্য অবদান রাখছে। মাকড়সার ৯০ শতাংশ শিকার কিট ও পোকামাকড় কেন্দ্রিক। মাকড়সা অন্যান্য আবাসস্থলের তুলনায় বন ও তৃণভূমির মধ্যে অনেক গুণ বেশি পোকামাকড় দমন করে।
গবেষণায় মাকড়সার প্রভাব কৃষি অঞ্চলে কম দেখা গেছে, কারণ নিবিড়ভাবে পরিচালিত কৃষিজমি মাকড়সার অনুকূল নয়।
মাকড়সা বেশির ভাগ পোকামাকড় গ্রাস করলেও কিছু বড় প্রজাতির মাকড়সা মাঝে মাঝে মেরুদণ্ডী খাবার যেমন ব্যাঙ, টিকটিকি, মাছ এবং ছোট স্তন্যপায়ী খেয়ে থাকে। বিশ্বজুড়ে প্রায় ৪৫ হাজার প্রজাতির মাকড়সা রয়েছে, যাদের সমষ্টিগত ওজন ২৫ মিলিয়ন টন।

Advertisements