জঙ্গলে লুকিয়ে ছিল শহর


jongol3-kalerkantho-picপ্রাচীনকাল থেকে প্রচলিত কাহিনীর ওপর বিশ্বাস করা অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়ে। কিন্তু কানে শোনা কাহিনীগুলির যদি প্রমাণ পাওয়া যায়, তখন এই ধরনের গোপন রহস্যগুলি সমানে আসতে থাকে যা মানুষকে অবাক করে। কয়েক হাজার বছর আগে মধ্য আমেরিকার হান্ডুরসে সেই সময়ের সবথেকে ধনী শহরের অবস্হান ছিল। গভীর জঙ্গল এবং পাহাড়ের মধ্যে লুকিয়ে থাকা এই শহরের অনেক নাম ছিল। কথিত আছে যে কয়েকজন এই শহরের দেবতা, যাকে মাঙ্কি গড্ বলা হতো, তাকে অপমান করেছিল। এই কারণে সেই দেবতা এই শহরকে অভিশাপ দেয়, যার কারণে এক রাতের মধ্যে এই শহর অদৃশ্য হয়ে যায়। ৬০০ বছর ধরে অধিকাংশ মানুষ এটাকে গল্প বলে মনে করতেন। এই গল্পের সাথে আরেকটি জিনিস যুক্ত রয়েছে। সেটা হলো যারা এই শহরকে খোঁজার চেষ্টা করে তাদের চামড়ায় রহস্যময় রোগ হয়ে যায়। কিন্তু ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলের ডগলাস প্রেস্টন তার দলের সাথে এই শহরকে খুঁজে বার করেন।
২০১৫ থেকেই প্রেস্টন তার দলের সাথে মধ্য আমেরিকার জঙ্গলে এই শহরের অনুসন্ধান করছিলেন। জঙ্গলে এই প্রাচীন শহরকে খোঁজার সময় এই দলকে স্থানীয়রা লোকেরা বলে যারা এই শহরটিকে খোঁজার চেষ্টা করে তাদের চামড়ার রোগ হয়ে যায়। মোস্কুয়টা জঙ্গলে ঘোরার পর প্রেস্টনের দল এমন একটি জিনিস দেখেন, যেটা দেখার পর তাদের আশা আরও বেড়ে যায়। তারা মাটিতে মূর্তির ছাপ দেখতে পান। সেটাকে খনন করে বের করার পর তারা অবাক হয়ে যায়। সেই এলাকায় আরও খোঁজাখুঁজির পর এই ধরনের মূর্তি তারা পায়। এর মধ্যে মাঙ্কি গডের মূর্তিও রয়েছে।
আজ পর্যন্ত যে শহরের শুধুমাত্র গল্প শোনা গেছে সেটা সত্যিকারে উপস্থিতও রয়েছে। স্থানটি কি সত্যি অভিশপ্ত? নাকি সব গুজব।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s