IPL-Sheduleআগামীকাল থেকে মাঠে গড়াচ্ছে অর্থ সমৃদ্ধ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) টুয়েন্টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটের দশম আসর। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনে মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সানরাইজ হায়দারাবাদ ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। হায়দারাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায় শুরু হবে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ।
২০০৮ সালে আইপিএলের অভিষেকের পর থেকে ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম জনপ্রিয় আসরের খ্যাতিও পেয়েছে এটি। খেলা উপভোগে স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক, টিভি সেটের সামনে রেকর্ড দর্শকদের উপস্থিতি সেটিই প্রমাণ দেয়।
আইপিএলের চেয়ারম্যান রাজী শুক্লা বলেন, ‘আইপিএলের সবগুলো ম্যাচেই স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক থাকে। কেবল তাই নয় এটি বিশ্বব্যাপি দর্শকদেরও অনেক বেশি জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট।’
আসন্ন আসরে মোট আটটি দল অংশ নিচ্ছে। তবে এবারের আসরকে ঘিরে ধরেছে ইনজুরি। এজন্য তারকা অনেক খেলোয়াড়কেই দেখা যাবে না ব্যাট-বলের লড়াইয়ে। তারপরও নামী-দামি তারকাদের উপস্থিতি থাকছে আসন্ন আসরে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতাবেন যেসব বলিউড তারকা
pari-tiger-shraddhaআইপিএল-এর আগের নয়টি সিজনের চোখ ধাঁধানো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে দেখা গেছে বলিউডের একনম্বর তারকাদের। আইপিএল-এর মঞ্চে এর আগে পারফর্ম করেছেন শাহরুখ খান, হৃত্বিক রোশন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, দীপিকা পা়ডুকোনের মতো তারকারা। তবে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে শুরু থেকেই রয়েছে চমক। আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা জানিয়েছেন, এবার আইপিএল-এর ৮টি হোস্ট শহরে আটটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। অর্থাৎ সেই সব শহরের উদ্বোধনী ম্যাচের আগে স্টেজ পারফর্ম করবেন বলিউডের তরুণ ব্রিগেড পরীনীতি চোপড়া, টাইগার শ্রফ, শ্রদ্ধা কাপুরের মতো তারকারা। বলিউডের এই তারকারা পারফর্ম করবেন দিল্লি, কলকাতা, হায়দরাবাদ, গুজরাট, মু্ম্বাই, পুণে, বেঙ্গালুরু এবং রাজকোট। যা শুরু হচ্ছে আগামীকাল হায়দরাবাদে উদ্বোধনী ম্যাচে আগে।
বুধবার বাংলাদেশ সময় তিনটায় শুরু হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এখানে স্টেজে দেখা যাবে শচীন টেন্ডুলকার, রাহুল দ্রাবিড়, সৌরভ গাঙ্গুলি, বীরেন্দ্র শেবাগ, ভিবিএস লহ্মণের মতো সাবেক তারকা ক্রিকেটারদের। এখনও স্পষ্ট জানা না গেলেও পারফর্ম করতে পারেন টাইগার শ্রফ ও শ্রদ্ধা কাপুর। বলিউড মহলে গুঞ্জন, স্টেজ মাতাতে দেখা যেতে পারে হৃতিক রোশনেরও। এছাড়া নাচের জাদু দেখাবেন অ্যামি জ্যাকসন।
এদিকে, রীতেশ দেশমুখ তাঁর শিল্প দেখাবেন পুণে রাইসিং সুপারজায়েন্টের ভক্তদের জন্য। দিল্লি ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের এক প্রবীণ কর্মকর্তার দাবি, পরিনীতি পারফর্ম করবেন দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে। ১৫ এপ্রিল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বিরুদ্ধে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের উদ্বোধনী ম্যাচের আগে।
ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গলের কর্মকর্তার দাবি, কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ইডেন গার্ডেনস মাতাতে আসছেন শ্রাদ্ধা কাপু এবং মোনালি ঠাকুর। তবে কেকেআর-এর মালিক শাহরুখ খানের ঝলকও দেখতে পারে ইডেনের দর্শকেরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন। এবিষয়ে নিশ্চিত করে কেউ কিছু না বললেও, বাদশার পক্ষে সবই সম্ভব, দাবি সিএবি-র এক কর্মকর্তার।
এদিকে গুজরাট লায়ন্স-এর হয়ে তাঁর স্টান্ট দেখাবেন জ্যাকি পুত্র টাইগার শ্রফ। রাজকোটে সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের স্টেডিয়াম দেখতে পাবে টাইগারের পারফর্ম্যান্সের ঝলক।তবে মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন এবং কর্ণাটক স্টেট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের হাতে এখনও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সংক্রান্ত ব্লু-প্রিন্ট এসে পৌঁছয়নি। এদিকে পাঞ্চাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের কর্তাব্যক্তিদের দাবি, তাঁরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্পর্কে কিছুই জানেন না, মধ্যপ্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের কর্তাদেরও একই মত পাঞ্চাব ক্রিকেট কর্তাদের মতো।

বাংলাদেশের সময় অনুযায়ী আইপিএলের পূর্ণাঙ্গ সূচি ভেন্যুসহ বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য দেওয়া হলো।
আইপিএলের আট দল: সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ, কলকাতা নাইট রাইডার্স, রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট, গুজরাট লায়ন্স, কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

আইপিএল ২০১৭- এর সূচি:
৫ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-বেঙ্গালুরু; হায়দ্রাবাদ
৬ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: পুনে-মুম্বাই; পুনে
৭ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-গুজরাট; রাজকোট
৮ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: পাঞ্জাব-পুনে; ইন্দোর
রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-বেঙ্গালুরু; বেঙ্গালুরু
৯ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-গুজরাট; হায়দ্রাবাদ
রাত ৮.৩০টা: মুম্বাই-কলকাতা; মুম্বাই
১০ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: পাঞ্জাব-বেঙ্গালুরু; ইন্দোর
১১ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: পুনে-দিল্লি; পুনে
১২ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: মুম্বাই-হায়দ্রাবাদ; মুম্বাই
১৩ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-পাঞ্জাব; কলকাতা
১৪ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: বেঙ্গালুরু-মুম্বাই; বেঙ্গালুরু
রাত ৮.৩০: গুজরাট-পুনে; রাজকোট
১৫ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: কলকাতা-হায়দ্রাবাদ, কলকাতা
রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-পাঞ্জাব; দিল্লি
১৬ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: মুম্বাই-গুজরাট; মুম্বাই
রাত ৮.৩০টা: বেঙ্গালুরু-পুনে; বেঙ্গালুরু
১৭ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: দিল্লি-কলকাতা; দিল্লি
রাত ৮.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-পাঞ্জাব; হায়দ্রাবাদ
১৮ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: গুজরাট-বেঙ্গালুরু; রাজকোট
১৯ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-দিল্লি; হায়দ্রাবাদ
২০ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: পাঞ্জাব-মুম্বাই; ইন্দোর
২১ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-গুজরাট; কলকাতা
২২ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: দিল্লি-মুম্বাই; দিল্লি
রাত ৮.৩০টা: পুনে-হায়দ্রাবাদ; পুনে
২৩ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: গুজরাট-পাঞ্জাব; রাজকোট
রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-বেঙ্গালুরু; কলকাতা
২৪ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: মুম্বাই-পুনে; মুম্বাই
২৫ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: বেঙ্গালুরু-হায়দ্রাবাদ; বেঙ্গালুরু
২৬ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: পুনে-কলকাতা; পুনে
২৭ এপ্রিল, রাত ৮.৩০টা: বেঙ্গালুরু-গুজরাট; বেঙ্গালুরু
২৮ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: কলকাতা-দিল্লি; কলকাতা
রাত ৮.৩০টা: পাঞ্জাব-হায়দ্রাবাদ; মোহালি
২৯ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: পুনে-বেঙ্গালুরু; পুনে
রাত ৮.৩০টা: গুজরাট-মুম্বাই; রাজকোট
৩০ এপ্রিল, বিকেল ৪.৩০টা: পাঞ্জাব-দিল্লি; মোহালি
রাত ৮.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-কলকাতা; হায়দ্রাবাদ
১ মে, বিকেল ৪.৩০টা: মুম্বাই-বেঙ্গালুরু; মুম্বাই
রাত ৮.৩০টা: পুনে-গুজরাট; পুনে
২ মে, রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-হায়দ্রাবাদ; দিল্লি
৩ মে, রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-পুনে; কলকাতা
৪ মে, রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-গুজরাট; দিল্লি
৫ মে, রাত ৮.৩০টা: বেঙ্গালুরু-পাঞ্জাব; বেঙ্গালুরু
৬ মে, বিকেল ৪.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-পুনে; হায়দ্রাবাদ
রাত ৮.৩০টা: মুম্বাই-দিল্লি; মুম্বাই
৭ মে, বিকেল ৪.৩০টা: বেঙ্গালুরু-কলকাতা; বেঙ্গালুরু
রাত ৮.৩০টা: পাঞ্জাব-গুজরাট; মোহালি
৮ মে, রাত ৮.৩০টা: হায়দ্রাবাদ-মুম্বাই; হায়দ্রাবাদ
৯ মে, রাত ৮.৩০টা: পাঞ্জাব-কলকাতা; মোহালি
১০ মে, রাত ৮.৩০টা: গুজরাট-দিল্লি; কানপুর
১১ মে, রাত ৮.৩০টা: মুম্বাই-পাঞ্জাব; মুম্বাই
১২ মে, রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-পুনে; দিল্লি
১৩ মে, বিকেল ৪.৩০টা: গুজরাট-হায়দ্রাবাদ; কানপুর
রাত ৮.৩০টা: কলকাতা-মুম্বাই; কলকাতা
১৪ মে, বিকেল ৪.৩০টা: পুনে-পাঞ্জাব; পুনে
রাত ৮.৩০টা: দিল্লি-বেঙ্গালুরু; দিল্লি
১৬ মে, রাত ৮.৩০টা: বাছাইপর্ব-১
১৭ মে, রাত ৮.৩০টা: এলিমিনেটর
১৯ মে, রাত ৮.৩০টা: বাছাইপর্ব-২
২১ মে, রাত ৮.৩০টা: ফাইনাল-রাজীব গান্ধী ক্রিকেট স্টেডিয়াম, হায়দ্রাবাদ।

Advertisements