red cardহলুদ কার্ড,লাল কার্ডের ব্যাপারটা মূলত ফুটবল কিংবা হকির মতো খেলায় ব্যবহৃত হয়। ক্রিকেটেও আম্পায়ার বিকি বাউডেন একবার মজা করে লাল কার্ড ব্যবহার করলেও এবার সত্যি সত্যি সাময়িক/তৎক্ষণাৎ শাস্তির ব্যবস্থা করছে আইসিসি, এমনটাই জানিয়েছে মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব-এমসিসি।
গতকাল আইসিসি ক্রিকেট কমিটি নতুন এক প্রস্তাবে আম্পায়ারদের এমন ক্ষমতা দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। আগামী অক্টোবর থেকেই হয়তো অদৃশ্য লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হবে অতি আক্রমণাত্মক ক্রিকেটারদের!
অনিল কুম্বলের নেতৃত্বে ক্রিকেট কমিটি অবশ্য ক্রিকেটকে বদলে দেওয়া এমন আরও বেশ কিছু প্রস্তাব দিয়েছেন। রাহুল দ্রাবিড়, মাহেলা জয়াবর্ধনে, অ্যান্ড্রু স্ট্রাউস, ড্যারেন লেম্যান এবং কেভিন ও’ব্রায়ানদের মতো সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটাররা আছেন আইসিসির এই ক্রিকেট কমিটিতে। নিজেদের অভিজ্ঞতা ও বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করেই যুগান্তকারী কিছু সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন তাঁরা।

লাল কার্ড
মাঠে সর্বোচ্চ পর্যায়ের অসদাচরণের কারণে খেলোয়াড়দের বের করে দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে আম্পায়ারদের কাছে। ইংল্যান্ডের নিচের স্তরের ক্রিকেটে এরই মধ্যে এই নিয়ম চালু হয়েছে এবং সেখানকার সাফল্যই ক্রিকেট কমিটিকে অনুপ্রাণিত করছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও এটা চালু করার।

ডিআরএস
‘লাল কার্ড’ তবু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে; কিন্তু আরও কিছু প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে যা ক্রিকেটকে আসলেই বদলে দিতে পারে। বিশেষ করে ‘ডিআরএস’ এর নতুন নিয়ম সব দলেরই সাদরে গ্রহণ করে নেওয়ার কথা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোস্তাফিজুর রহমানের প্রথম উইকেটের কথা মনে আছে? শহীদ আফ্রিদির সে উইকেট নতুন নিয়মে আর পাওয়া হতো না বাংলাদেশি পেসারের। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে যে রিভিউ সিস্টেম চালু করার ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। তবে টেস্টে যে পরিবর্তনের প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে, সেটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বর্তমানে আম্পায়ারের কোনো এলবিডব্লিউর সিদ্ধান্ত রিভিউ নেওয়া হলে, যদি রিপ্লেতে ‘আম্পায়ার্স কল’ দেখা যায় তবে সে সিদ্ধান্ত আর পরিবর্তন হয় না, এবং আবেদন করা দলটির একটি রিভিউ নষ্ট হয়ে যায়। যেহেতু ‘আম্পায়ার্স কল’ এর ক্ষেত্রে মাঠের সিদ্ধান্ত উল্টো হলেই রিভিউ সঠিক হয়ে যেত, সে ক্ষেত্রে এভাবে রিভিউ বাতিল হওয়াটা দুর্ভাগ্যজনক। এখন থেকে তাই এলবিডব্লিউর সিদ্ধান্তে ‘আম্পায়ার্স কল’ হলে সিদ্ধান্ত পক্ষে না পাওয়া দলের রিভিউ নষ্ট হবে না। তবে সে ক্ষেত্রে প্রতি ৮০ ওভারে নতুন দুটি রিভিউ পাওয়ার নিয়মটা বাতিল হয়ে পুরো ইনিংসেই শুধু দুটো রিভিউ থাকবে।

বদলি খেলোয়াড়
ক্রিকেটে বদলি খেলোয়াড় এর আগেও একবার চালু করা হয়েছিল। তবে এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। মাথায় আঘাত পেয়ে কোনো খেলোয়াড় মাঠ ছাড়লে, তাঁর বদলি হিসেবে নতুন একজনকে নামানো যাবে। পরীক্ষামূলকভাবে দুই বছরের জন্য এটা চালু করতে চায় ক্রিকেট কমিটি। অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় ক্রিকেট এরই মাঝে এটা চালু করে সাফল্যও পাওয়া যাচ্ছে।

রান আউটের নিয়ম সংশোধন
নিউজিল্যান্ড সফরে ক্রাইস্ট চার্চ টেস্টে নিল ওয়াগনারের রান আউটের কথা খেয়াল আছে? ক্রিজ পার হয়েও রান আউট হয়েছিলেন কিউই পেসার। কারণ বাংলাদেশের উইকেট রক্ষক নুরুল হাসান যখন স্টাম্প ভেঙে দিচ্ছেন, তখন ওয়াগনারের পা ও ব্যাট দুটোই বাতাসে ছিল! কিন্তু এখন থেকে একবার ব্যাট বা পা ক্রিজ অতিক্রম করলেই আর রান আউট হতে হবে না ব্যাটসম্যানকে।

নো বল
নতুন প্রস্তাবে টিভি আম্পায়ারের ক্ষমতাও বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ইদানীং মাঠের আম্পায়াররা অধিকাংশ সময় পরিষ্কার নো বল দিতে পারছেন না। শুধু আউট হলেই সেটা রিপ্লেতে দেখে নেওয়া হয় বলটা নো বল ছিল না কিনা। কিন্তু নতুন প্রস্তাবে বল হয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রিপ্লে দেখে সিদ্ধান্ত জানাতে পারবেন তৃতীয় আম্পায়ার। নমুনা হিসেবে কিছুদিন আগে হওয়া ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের একটি ম্যাচের ভিডিও দেখার পরই এ সিদ্ধান্তে এসেছেন সবাই।
এ ছাড়া ব্যাটের পুরুত্ব নিয়েও নতুন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। একটা নির্দিষ্ট মাত্রার বেশি পুরু ব্যাট ব্যবহার করতে পারবেন না ব্যাটসম্যানরা। তবে নতুন প্রস্তাবগুলো আসলেই আলোর মুখ দেখবে কিনা সেটা আইসিসির নির্বাহী কমিটির ওপর নির্ভর করছে। আগামী অক্টোবরে এ কমিটির মিটিংয়ে পাশ হলেই নতুন নিয়মে ক্রিকেট খেলবে সবাই। সূত্র: এএফপি, ক্রিকইনফো।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s