tamim-starkবৃষ্টি বন্ধের জন্য প্রার্থনা করছিল অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে বাংলাদেশি সমর্থকরা চেয়েছিলেন লম্বা বৃষ্টি। প্রকৃতি সঙ্গ দিয়েছে বাংলাদেশকে। লন্ডনে বৃষ্টির কারণে হারতে বসা ম্যাচে এক পয়েন্ট পেল টাইগাররা। টানা বৃষ্টির কারণে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটি পরিত্যক্ত হলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয় দুই দলকে। প্রায় হারের মুখে থাকা ম্যাচে এক পয়েন্ট পাওয়ায় সেমিফাইনালের স্বপ্ন টিকে রইল বাংলাদেশের।
ওভালে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের তোপের মুখে পড়ে মাত্র ১৮২ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ১৬ ওভার শেষে ১ উইকেট হারিয়ে ৮৩ রান সংগ্রহ করেছে অস্ট্রেলিয়া। এরপর প্রায় আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষা করার পর ম্যাচ অফিসিয়ালরা খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে বাধ্য হন।
বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ৪৩ মিনিটে ১৬তম ওভারের শেষ বলে হওয়ার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়। আর ৪ ওভার ব্যাটিং করতে পারলেই ম্যাচটি জিতে যেত অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু বেরসিক বৃষ্টির কারণে বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৮ মিনিটে ম্যাচ বাতিল হলে কপাল পুড়ে অজিদের।
এদিকে ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ায় সেমিফাইানালে যেতে হলে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডকে হারাতেই হবে অস্ট্রেলিয়ার। অন্যদিকে শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিতে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশেরও। এর আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারতে হারতে বৃষ্টির কল্যাণে এক পয়েন্ট পায় অস্ট্রেলিয়া। সেবার বৃষ্টি অস্ট্রেলিয়ার হার বাঁচিয়েছিল। এবার নিশ্চিত জয় কেড়ে নেয়।
অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ডেভিড ওয়ার্নার ৪০ এবং স্টিভেন স্মিথ ২২ রান নিয়ে ব্যাট করছিলেন। অ্যারন ফিঞ্চ ১৯ রান করে রুবেল হোসেনের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন।
এর আগে লন্ডনের কেনিংটন ওভালে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান ছাড়া অন্য সবাই ব্যাট হাতে চরম ব্যর্থ হলে ৪৪.৩ ওভারে ১৮২ রানে গুটিয়ে যায় টাইগাররা।
বাংলাদেশের হয়ে ওপেনিংয়ে নেমে ৪৩তম ওভারে আউট হওয়ার আগে তামিম ১১৪ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ৯৫ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। সাকিব ৪৮ বলে করেন ২৯ রান। সৌম্য সরকার (৩), ইমরুল কায়েস (৬), মুশফিকুর রহীম (৯), সাব্বির রহমান (৮) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৮) ব্যাট হাতে চরম ব্যর্থ হন।
অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মিচেল স্টার্ক সর্বোচ্চ চারটি উইকেট নেন। এছাড়া অ্যাডাম জাম্পা দুটি এবং জস হ্যাজলউড, প্যাট কামিন্স, ট্রাভিস হেড ও ময়েসেস হেনরিকস নেন একটি করে উইকেট।
গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩০০ প্লাস রান করেও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। অন্যদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারতে হারতে বৃষ্টির কল্যাণে বেঁচে যায় অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার কাছে ম্যাচটিতে হেরে গেলেই গ্রুপ পর্ব থেকে বাংলাদেশের বিদায় নিশ্চিত হবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ: ৪৩.৩ ওভারে ১৮২ (তামিম ৯৫, সৌম্য ৩, ইমরুল ৬, মুশফিক ৯, সাকিব ২৯, সাব্বির ৮, মাহমুদউল্লাহ ৮, মিরাজ ১৪, মাশরাফি ০, রুবেল ০, মুস্তাফিজ ১*; স্টার্ক ৪/২৯, হেইজেলউড ১/৪০, কামিন্স ১/২২, হেড ১/৩০, হেনরিকেস ১/৩০, জ্যাম্পা ২/১৩, ম্যাক্সওয়েল ০/৯)।
অস্ট্রেলিয়া: ১৬ ওভারে ৮৩/১ (ওয়ার্নার ৪০*, ফিঞ্চ ১৯, স্মিথ ২২*; মুস্তাফিজ ০/২৭, মাশরাফি ০/৩০, রুবেল ১/২১, মিরাজ ০/৪)।
ফল: ম্যাচ পরিত্যক্ত

Advertisements