‘ভিভিআইপি’ গাছ, পাহারায় খরচ ১২ লাখ!


'VVIP Tree'2ভারতের মধ্যপ্রদেশে একটি গাছ রক্ষণাবেক্ষণে বছরে ১২ লাখ রুপি খরচ হচ্ছে। এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, তর্কসাপেক্ষ এই ‘পিপল ট্রি’ হলো ভারতের প্রথম ‘ভিভিআইপি’ গাছ। গাছটি মধ্যপ্রদেশের সালমাতপুরে অবস্থিত। গাছটিকে বাঁচিয়ে রাখতে রাজ্য সরকার বছরে ১২ লাখ রুপি গুনছে।
ইউনেসকো-ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ সানচি বৌদ্ধ কমপ্লেক্স থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে গাছটি বেড়ে উঠছে। গাছটি ইতিমধ্যে বড় হয়েছে।
গাছটির চারদিকে শক্ত লোহার বেড়া, রয়েছে পানির ট্যাংক। চারজন রক্ষী পালাক্রমে পাহারা দেওয়ার পাশাপাশি পানি দেন। আবার প্রতি সপ্তাহে একজন উদ্ভিদতত্ত্ববিদ এসে পরীক্ষা করে যান গাছটির সর্বশেষ অবস্থা।
পরমেশ্বর তিওয়ারি নামের এক রক্ষী বলেন, ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর থেকে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
উপবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট বরুণ আওয়াস্তি বলেন, গাছের নিরাপত্তা ও পানি দেওয়ার জন্য চারজন রক্ষী দেওয়া হয়েছে।
বছর পাঁচেক আগে শ্রীলঙ্কার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপক্ষে গাছটি রোপণ করেছিলেন। ‘পবিত্র’ গাছটি নিজ দেশ থেকে এনেছিলেন তিনি।
ভিভিআইপি গাছটির চারদিকে লোহার বেড়া আছে। গাছে পানি দেওয়ার জন্য আছে ট্যাংক। এ ছাড়া রাজ্যের কৃষি বিভাগের একজন উদ্ভিদতত্ত্ববিদ প্রতি সপ্তাহে গাছটির অবস্থা দেখতে যান।
ঋণের ভার সইতে না পেরে মধ্যপ্রদেশে গত মাসেই ৫১ জন কৃষক আত্মহত্যা করেছেন। এ অবস্থায় একটি গাছের পেছনে এত অর্থ ব্যয় করা নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s